যুক্তরাষ্ট্রে জিন থেরাপির কৌশল প্রয়োগে করোনা ভ্যাকসিন

সুমন দত্ত: জিন থেরাপির কৌশল প্রয়োগ করে করোনার ভ্যাকসিন তৈরি করেছে যুক্তরাষ্ট্রের প্রখ্যাত বিশ্ববিদ্যালয় হারবার্টের তালিকাভূক্ত দুটো হাসপাতাল। এ বছরের শেষ দিকে মানবদেহে তা পরীক্ষা করা হবে। সোমবার নিউ ইয়র্ক টাইমের এক প্রতিবেদন এ কথা বলা হয়।

দুই ধরনের রোগের ওপর জিন থেরাপির এই কৌশল ব্যবহার করা হয়েছিল। এতে সফলতা আশায় করোনা ভ্যাকসিন তৈরিতে অগ্রসর হয় বিজ্ঞানীরা। ভ্যাকসিন তৈরিতে গবেষকরা একটি অক্ষতিকর ভাইরাসকে ভেক্টর হিসেবে বা বাহক হিসেবে ব্যবহার করে। এই বাহক রোগীর কোষ থেকে ডিএনএ বের করে আনে। তারপর এই ডিএনএকে বাধ্য করে করোনাভাইরাসের প্রোটিন তৈরি করতে। এই প্রোটিন রোগ প্রতিরোধ ব্যবস্থাকে উদ্দীপ্ত করে, যাতে ভবিষ্যতে করোনাভাইরাস ব্যক্তির দেহে সংক্রমণ করতে না পারে।

ইঁদুরের ওপর এই ভ্যাকসিন পরীক্ষা করা হয়েছে। তবে ফলাফল জানায়নি। আগামী এক মাসের মধ্যে বানরের মধ্যে প্রয়োগ করা হবে। এতে ভ্যাকসিন টি নিরাপদ কিনা তা জানা যাবে। গবেষকরা বলছেন মানব দেহে প্রয়োগের জন্য ইতিমধ্যে ভ্যাকসিনের দুটি অথবা সাতটি সংস্করণ তৈরি করা হয়েছে। তাদের আশা পুরো প্রক্রিয়ায় তারা সফল হবে।