ফেনীতে কৃষকের ধান কেটে দিচ্ছে ছাত্রলীগের নেতা-কর্মীরা

নিউজ ডেস্ক:   করোনাভাইরাসের কারণে সৃষ্ট কৃষিশ্রমিক(দিনমজুর) সংকট নিরসনে কৃষকের সহায়তায় এগিয়ে এসেছে ফেনী জেলা ছাত্রলীগের নেতা-কর্মীরা। তারা দল বেঁধে কাস্তে হাতে মাঠে নেমে ধান কেটে কৃষকদের ঘরে তুলে দিচ্ছে।

জেলার সোনাগাজী উপজেলার চর শাহাভিকারী কেরামতিয়া বাজার এলাকায় কাস্তে হাতে নিয়ে দল বেঁধে মাঠে নেমে ধান কাটতে দেখা গেছে তাদের।

স্থানীয় কৃষক সাহাব উদ্দিন জানান, করোনা পরিস্থিতির কারণে পরিবহন বন্ধ হওয়ায় এলাকায় প্রকটভাবে দিনমজুরের সংকট দেখা দেয়ায় মজুরী বেড়ে গেছে অনেকটা। তিনি বলেন, আমার ৩ একর জমিতে ধান পেকে গেছে অথচ অতিরিক্ত খরচ বহন করে মজুরী দেয়ার সামর্থ্য নেই। ছাত্রলীগের ভূমিকা আমায় আশ্বস্ত করেছে।

সোনাগাজী উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান জহির উদ্দিন মাহমুদ লিপটন বলেন, বাংলাদেশ ছাত্রলীগ সৃষ্টির পর থেকে দেশের প্রত্যেকটি প্রয়োজনে তারা সামনে দাঁড়িয়েছে। আবাদী জমি বেশী হওয়ায় সোনাগাজী ফেনীর খাদ্য ভান্ডার। প্রতিকূল পরিস্থিতিতে ফেনী জেলা ছাত্রলীগ কৃষকের পাশে দাঁড়িয়ে নিজেদের ঐতিহ্যের কথা মানুষকে মনে করিয়ে দিয়েছে।

ফেনী জেলা ছাত্রলীগ সভাপতি এম সালাহ উদ্দিন ফিরোজ বলেন, কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগের নির্দেশে আমরা ধানকাটা কর্মসূচি গ্রহণ করেছি। এখানে কৃষকদের সঙ্গে কথা বলেছি, তাদের নিশ্চয়তা দিয়েছি যতদিন আমাদের প্রয়োজন হবে ততদিন তারা আমাদের সহযোগিতা পাবেন।

সোনাগাজী উপজেলা ছাত্রলীগ সভাপতি আবদুল মোতালেব চৌধুরী বলেন, আমরা ৬০জন নেতা-কর্মী দুই দলে ভাগ হয়ে ধান কাটার কাজ করছি। উপজেলায় কৃষকদের সহযোগিতায় আমরা ১০টি দল হয় মাঠে কাজ করবো।
সোনাগাজী উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা সাজ্জাদ হোসেন মজুমদার বলেন, এখানে ১ হাজার ১১০ হেক্টও জমিতে বোরো ধান চাষাবাদ হয়েছে। আশা করা যায় বাম্পার ফলন হবে।

ছাত্রলীগের ধানকাটা কর্মসূচিতে আরও উপস্থিত ছিলেন জেলা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক জাভেদ হায়দার জর্জ ও ছাত্রলীগ নেতৃবৃন্দ।