দুই হাজার আইসোলেশন বেড হচ্ছে: স্বাস্থ্যমন্ত্রী

নিউজ ডেস্ক:   করোনার প্রকোপ ঠেকাতে রাজধানীর বসুন্ধরা কনভেনশন সেন্টারে অন্তত দুই হাজার আইসোলেশন বেড হবে বলে জানিয়েছেন স্বাস্থ্যমন্ত্রী জাহিদ মালেক।

আগামী ১৫-২০ দিনের মধ্যেই সব আনুষ্ঠানিকতা সম্পন্ন করার পর কার্যক্রম শুরু করা হবে বলেও জানান তিনি।

বৃহস্পতিবার নিজ বাসভবন থেকে ভিডিও কলে সরাসরি করোনাভাইরাস সংক্রান্ত তথ্য প্রকাশকালে মন্ত্রী এসব কথা জানান। স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের জনসংযোগ বিভাগ থেকে দেওয়া এক সংবাদি বিজ্ঞপ্তিতে এসব তথ্য জানানো হয়েছে।

বসুন্ধরা কনভেনশন সেন্টার ছাড়াও রাজধানীর নর্থ সিটি সেন্টারকে ১ হাজার ৪০০ বেড এবং উত্তরার দিয়াবাড়ির পূর্ব নির্ধারিত ৪টি ভবনে আরও ১ হাজার ২০০ বেডের আইসোলেশন সেন্টার করার কথাও জানান স্বাস্থ্যমন্ত্রী।

আইসিইউ ও ভেন্টিলেটর এক জিনিস নয় এবং এ বিষয়ে বিষয়ে মানুষের মনে কিছুটা বিভ্রান্তি রয়েছে উল্লেখ করে জাহিদ মালেক বলেন, একটি আইসিইউ ইউনিটে একাধিক ভেন্টিলেটর থাকতে পারে। দেশে ৫৫০টিরও বেশি ভেন্টিলেটর রয়েছে। পাশাপাশি নতুন আরও ৩৮০টি ভেন্টিলেটর আনা হচ্ছে।

উল্লেখ্য, দেশে বর্তমানে সরকারি ও বেসরকারিভাবে মোট ১ হাজার ২৫৭টি আইসিইউ ইউনিট রয়েছে। যার মধ্যে সরকারি ৫২০টি এবং বেসরকারি ৭৩৭টি। এগুলোর মধ্যে ঢাকায় আছে ৯২৬টি এবং ঢাকার বাইরে রয়েছে ৩৪১টি। তার মধ্যে শুধু করোনার জন্য আইসিইউ প্রস্তুত রাখা আছে ১০০-১৫০টি। করোনার প্রকোপ বৃদ্ধি পেলে অন্যান্য আইসিইউ করোনা মোকাবিলায় সংযুক্ত করা হবে।

স্বাস্থ্যমন্ত্রীর অনলাইন ভিডিও প্রেস ব্রিফিংকালে আরও উপস্থিত ছিলেন ত্রাণ ও দুর্যোগ প্রতিমন্ত্রী ডা. এনামুর রহমান, স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের মহাপরিচালক অধ্যাপক আবুল কালাম আজাদ, স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের অতিরিক্ত মহাপরিচালক অধ্যাপক সানিয়া তাহমিনা ও আইইডিসিয়ার এর পরিচালক অধ্যাপক মীরজাদি সাব্রিনা ফ্লোরা।