করোনায় নারীর প্রতি সহিংসতা বাড়ছে : আন্তোনিও গুতেরেস

নিউজ ডেস্ক:    বিশ্ব যখন করোনাভাইরাসের প্রতিষেধক আবিষ্কারের চেষ্টাসহ নানাভাবে এটি মোকাবিলা করছে, তখন ভিন্ন একটি বিষয়ের প্রতি সবার দৃষ্টি আকর্ষণ করেছেন জাতিসংঘের মহাসিচব আন্তোনিও গুতেরেস। সেটি হলো, এই দুর্যোগের সময় নারীর প্রতি পারিবারিক সহিংসতার ঘটনা হু হু করে বাড়ছে। যেখানে তাদের সবচেয়ে নিরাপদে থাকার কথা এই সময়ে, সেটি নারীদের জন্য বিভীষিকাময় হয়ে ওঠছে।

করোনাভাইরাস মোকাবিলা কৌশলে এই বিষয়টিও যুক্ত করতে রাষ্ট্রগুলোর প্রতি আহ্বান জানান জাতিসংঘের মহাসচিব। এক বিবৃতিতে আন্তোনিও গুতেরেস এ আহ্বান জানিয়েছেন বলে আজ সোমবার খবর প্রকাশ করেছে বার্তা সংস্থা এএফপি। একাধিক ভাষায় সেই ভিডিও প্রকাশ করা হয়েছে।

জাতিসংঘের মহাসচিব এই দুর্যোগকালে যুদ্ধবিরতির ঘোষণা দিতে বিবদমান পক্ষগুলোর প্রতি আবারও আহ্বান জানিয়েছেন।

আন্তোনিও গুতেরেস বলেন, গত কয়েক সপ্তাহে অর্থনৈতিক ও সামাজিক চাপ বেড়েছে। মানুষের মধ্যে আতঙ্ক বেড়েছে। সেইসঙ্গে পাল্লা দিয়ে বেড়েছে পারিবারিক সহিংসতার ঘটনা। সরকারগুলো করোনাভাইরাস মোকাবিলায় জাতীয় যে পরিকল্পনা নিচ্ছে, তাতে নারীর প্রতি পারিবারিক সহিংতা রোধের বিষয়টিও যেন থাকে।

বিবৃতিতে ওষুধের দোকান ও মুদি দোকানগুলোতে জরুরি সতর্ক ব্যবস্থা চালুর ওপর জোর দেন জাতিসংঘের মহাসচিব। তিনি আরও বলেন, নারীরা যেন তাদের নির্যাতকদের এড়িয়ে রাষ্ট্রের কাছে জরুরি সেবা চাইতে পারেন।

‘করোনা মোকাবিলায় আমরা যেমন ঐক্যবদ্ধভাবে কাজ করছি, যেভাবে কাজ করলে আমরা যুদ্ধক্ষেত্র থেকে শুরু করে মানুষের বাড়ি পর্যন্ত সর্বত্র সহিংসতা ঠেকাতে পারব। বিশ্বব্যাপী ঘরে ঘরে শান্তির জন্য এটা আমাদের করতেই হবে’ যোগ করেন আন্তোনিও গুতেরেস।