আজ রাতে ৯ মিনিট অন্ধকারে থাকবে ভারত

নিউজ ডেস্ক:   করোনা মহামারীর ‘অন্ধকারে’র বিরুদ্ধে ঐক্যের শক্তি দেখাতে রোববার রাত ৯টায় ৯ মিনিটের জন্য অন্ধকারে থাকবে পুরো ভারত। এ সময় সব আলো নিভিয়ে দিয়ে ঘরের দরজায় বা ব্যালকনিতে দাঁড়াবেন ভারতবাসী। তাদের হাতে জ্বলবে মোমবাতি, কুপি কিংবা মোবাইলের ফ্লাশ লাইট। দেশ জুড়ে লকডাউনের ১২তম দিনে জাতীয় ঐক্যের এই শক্তি দেখাবে ভারত। এ পর্যন্ত ভারতে করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন ৩ হাজার ৩৭৩ জন। আর প্রাণ হারিয়েছেন ৭৭ জন। খবর এনডিটিভির

করোনাভাইরাসের কারণে ভারতজুড়ে যেভাবে সংকটময় পরিস্থিতির সৃষ্টি হয়েছে, তার বিরুদ্ধে সবাইকে কাঁধে কাঁধ মিলিয়ে লড়াই করার আহ্বান জানিয়েছিলেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। শুক্রবার দেশবাসীর উদ্দেশে করোনা নিয়ে ভাষণ দিতে গিয়ে মোদি বলেন, ‘আপনাদের সবার কাছ থেকে ৫ এপ্রিল ৯ মিনিট সময় চেয়ে নিচ্ছি। ওই দিন রাত ৯টায় ৯ মিনিটের জন্য সবাই ঘরের আলো নিভিয়ে রাখুন। এসময় বাড়িতে থেকেই প্রদীপ, মোমবাতি, টর্চ জ্বালান। তাও যদি না হয়, মোবাইলের ফ্ল্যাশ লাইট জ্বালান।’

করোনার অন্ধকারকে চ্যালেঞ্জ করার আহ্বানও জানিয়ে তিনি বলেন, ‘করোনার অন্ধকার থেকে দেশকে আলোর পথে নিয়ে যেতে হবে আমাদের। এটা লকডাউনের সময় ঠিকই। কিন্তু আপনারা কেউ একা নন। ১৩০ কোটি দেশবাসী এক সঙ্গে লড়ছে।’

মোদির সেই আহ্বানে সাড়া দিয়ে আজ রাতে যে যার বাড়িতে থেকে সেই ঐক্যের শক্তি দেখাবেন ভারতবাসী। যদিও মোদির এই আহ্বানে সমালোচনা শুরু করেছেন রাজনৈতিক বিরোধীরা। বিরোধী দল কংগ্রেস নেতা রাহুল গান্ধী বলেছেন, ভারতে করোনা ভাইরাসের বিরুদ্ধে লড়াই করতে প্রয়োজনীয় পরীক্ষাই হচ্ছে না। মানুষকে ঘর অন্ধকার করে আকাশের দিকে তাকিয়ে হাত তালি দিলে আর টর্চ জ্বাললেই করোনা মুক্ত হওয়া যাবে না। তবে অন্ধ্রপ্রদেশের মুখ্যমন্ত্রী জগন মোহন প্রধানমন্ত্রী মোদির আহ্বানে সাড়া দিয়ে আজ থাকবেন ঐক্যের আলো প্রদর্শনে।