তেল উৎপাদন হ্রাসে সহযোগিতা করতে রাশিয়া প্রস্তুত : পুতিন

নিউজ ডেস্ক:   প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন শুক্রবার বলেছেন, তেল উৎপাদন হ্রাসে সৌদি আরব ও যুক্তরাষ্ট্রের সাথে সহযোগিতা করতে প্রস্তুত মস্কো। খবর এএফপি’র।

পুতিনের বরাত দিয়ে ক্রেমলিনের দেয়া এক বিবৃতিতে বলা হয়, রাশিয়া ওপেক+ গ্রুপের কাঠামোর মধ্যে থেকেই চুক্তি করতে আগ্রহী রয়েছে। এক্ষেত্রে ‘আমরা তেল উৎপাদন হ্রাসে যুক্তরাষ্ট্রের সাথে সহযোগিতার জন্য প্রস্তুত রয়েছি।’

আমি মনে করি, এক্ষেত্রে জ্বালানি তেলের বাজার ভারসাম্য রক্ষায় সমন্বিত প্রচেষ্টা চালানো প্রয়োজন। বিশ্বব্যাপী করোনাভাইরাস ছড়িয়ে পড়ার কারণে বৈশ্বিক অর্থনীতির ক্ষেত্রে অনিশ্চয়তা দেখা দেয়ায় তেলের চাহিদা কমে যাওয়ায় সাম্প্রতিক সপ্তাহগুলোতে তেলের দাম অনেক হ্রাস পেয়েছে।

গত মাসে ওপেক এবং তার মিত্ররা তেলের উৎপাদন হ্রাসে একটি চুক্তিতে পৌঁছাতে ব্যর্থ হয়েছে। বিশ্বব্যাপী ছড়িয়ে পড়া করোনাভাইরাস মোকাবেলায় তেল সরবরাহ হ্রাসে মস্কো অস্বীকৃতি জনানোর পর তারা ব্যর্থ হয়।

কনফারেন্স কলের মাধ্যমে জ্বালানি মন্ত্রী আলেকজান্ডার নোভাকের সাথে কথা বলার সময় পুতিন বলেন, প্রতিদিন প্রায় ১ কোটি ব্যারেল তেল উৎপাদন হ্রাসের ব্যাপারে রাশিয়া আলোচনা করতে প্রস্তুত রয়েছে।

তিনি বলেন, রাশিয়া সৌদি আরবের অংশীদারদের সাথে আন্তরিকভাবে যোগাযোগ করছে এবং এ ব্যাপারে সম্প্রতি তিনি মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের সঙ্গে কথা বলেছেন।

পুতিন সৌদি যুবরাজ মোহাম্মাদ বিন সালমানের সঙ্গে কথা বলেছেন টুইটারে ট্রাম্প এমন দাবি করার পর ক্রেমলিন বৃহস্পতিবার তা অস্বীকার করেছে।

ওপেকের এক ঘনিষ্ট সূত্র জানায়, তেল উৎপাদনকারী গ্রুপ ওপেক সৌদি আরবের নেতৃত্বে ভিডিওকনফারেন্সের মাধ্যমে সোমবার বৈঠকের পরিকল্পনার পর পুতিন এমন মন্তব্য ব্যক্ত করেন।