গৌরীপুরে জনসমাগম কমছে না, ভ্রাম্যমাণ আদালতের অভিযান অব্যাহত

শফিকুল ইসলাম মিন্টু, গৌরীপুর (ময়মনসিংহ) সংবাদদাতা: করোনা ভাইরাস বিস্তাররোধে সরকারী আদেশ মোাতাবেক ঔষধ ও নিত্য প্রয়োজনীয় দোকান ছাড়া অন্যান্য দোকানপাট বন্ধ এবং জনসমাগম নিষেধ। কিন্তু এ আদেশ অমান্য করে চলছে গৌরীপুর হাটে ও বিভিন্ন ইউনিয়নের হাট-বাজারে এবং চায়ের দোকানে জনসমাগম। এই জনসমাগম ঠেকাতে চলছে মোবাইলকোর্ট ও পুলিশী এ্যাকসন।

মঙ্গলবার গৌরীপুর পৌরশহরের হাটবার থাকায় ব্যপক জনসমাগম হয়েছে। কাঁচা বাজার ছিল বেশ জমজমাট। অধিকাংশ দোকান একটি সাটার অথবা দরজার এক পাল্লা খোলা রেখেছে। বেশ কিছু ব্যাটারী চালিত অটো যাত্রী নিয়ে স্বাচ্ছন্দে চলাফেরা করতে দেখা যায়। মইলাকান্দা ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান রিয়াদুজ্জামান জানান, ইউনিয়নের শ্যামগঞ্জ, কাউরাট, গোবিন্দপুর, লামাপাড়া বাজারে ব্যপক জনসমাগম চলছে।

করোনা ভাইরাসের প্রাদুর্ভাব মোকাবেলায় জনসমাগম পরিহার করতে এবং ঔষধ ও নিত্য প্রয়োজনীয় দোকান ছাড়া অন্যান্য দোকানপাট ও পরিবহন বন্ধ রাখতে ইতিমধ্যে উপজেলা নির্বাহী অফিসার সেঁজুতি ধর উপজেলা সদর, বিভিন্ন হাটবাজার ও ইউনিয়নের গ্রামে গ্রামে জরুরী ঘোষণা মাইকিং প্রচার করেছেন। এরপরও অনেক দোকানপাট বন্ধ হয়নি। এসব দোকানপাট বন্ধ করতে ও জনসমাগম ঠেকাতে মোবাইলকোর্ট পরিচালিত হচ্ছে। রবিবার সহকারী কমিশনার (ভূমি) ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মোঃ মাসুদ রানা পরিচালিত ভ্রাম্যমাণ আদালত শ্যামগঞ্জ বাজারে চায়ের দোকান খোলা রেখে আড্ডার কারণে চুলা ভেঙ্গে দেয়া হয়। গাজীপুর বাজার, রামগোপালপুর বাজার, শ্যামগঞ্জ বাজার, মনাটি বাজারে জনসমাগমের ফলে সংক্রামক রোগ বিস্তার রোধকল্পে দন্ডবিধি ১৮৬০ এর ২৬৯ ধারা এবং সরকারি নির্দেশ অমান্যর অভিযোগে ১৮৮ ধারায় ৯টি পৃথক মামলায় ৯জন ব্যবসায়ীকে ১৮হাজার ৭৫০ টাকা জরিমানা করা হয়। ময়মনসিংহ-কিশোরগঞ্জ মহাসড়কের গাজীপুর বাসস্ট্যান্ড ও রামগোপালপুর বাজার এলাকায় যাত্রী পরিবহন করায় ৭০টি যাত্রীবাহি গাড়ির চাবি জব্দ করে। এসময় ৫০টি চায়ের দোকান বন্ধ করা হয়।

উপজেলা নির্বাহী অফিসার ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট সেঁজুতি ধর উপজেলার অচিন্তপুর বাজার, গাগলা বাজার, পাছার বাজার, কাচারি বাজার, গৌরীপুর বাজার এবং বিভিন্ন মোড়ের চায়ের দোকানে ভ্রাম্যমাণ আদালতের অভিযান চালিয়ে আঃ লতিফকে ৩হাজার টাকা, মোঃ শফিককে ২হাজার টাকা এবং মোঃ ওয়াদুদকে ২হাজার টাকা, সর্বমোট ৭হাজার টাকা জরিমানা আদায় করেন। শুক্রবার নাপ্তের আলগী বাজার, অনন্তগঞ্জ বাজার, রায়গঞ্জ বাজার, গাজীপুর, রামগোপালপুর, বোকাইনগর, বাসাবাড়ি বাজার, চকপাড়াসহ বিভিন্ন রাস্তার মোড়ের চায়ের দোকানে অভিযান চালান। রায়গঞ্জ বাজার ১জন, গাজীপুর ১জন, বাসাবাড়ি বাজার ২জনকে মোট ১০হাজার টাকা জরিমানা করে। এসময় তিনি চায়ের দোকান বন্ধ করে কেটলি ও চুলা ফেলে দিয়ে সতর্ক করেন। সহকারী কমিশনার (ভূমি) ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মোঃ মাসুদ রানা পরিচালিত ভ্রাম্যমাণ আদালত ১০জন দোকানদারকে ৯হাজার ৮শ টাকার জরিমানা করেন। এছাড়া বৃহস্পতিবার গৌরীপুর থানার অফিসার ইনচার্জ মোঃ বোরহান উদ্দিনের নেতৃত্বে এ্যাকশানে নামে পুলিশ।

জাহিদ/ঢাকানিউজ২৪ডটকম।