যুক্তরাষ্ট্রের মানবাধিকার রিপোর্ট একপেশে: তথ্যমন্ত্রী

নিউজ ডেস্ক :    আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ও তথ্যমন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদ বলেছেন, যুক্তরাষ্ট্রের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় মানবাধিকার পরিস্থিতি নিয়ে গত ১১ মার্চ বাংলাদেশের ওপর যে রিপোর্ট প্রকাশ করেছে তা একপেশে ও অগ্রহণযোগ্য। প্রকৃতপক্ষে যুক্তরাষ্ট্রেই মানবাধিকারের কী পরিস্থিতি, সেটিও বিশ্ববাসীর জানা প্রয়োজন। তা জানার অধিকার রয়েছে।

শুক্রবার বিকেলে চট্টগ্রামের রাঙ্গুনিয়া উপজেলা আওয়ামী লীগের বর্ধিত সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।

তিনি বলেন, যাদের তথ্য উপাত্ত নিয়ে এই রিপোর্ট প্রকাশ করা হয়েছে, সেই সমস্ত সংগঠন ইতিপূর্বেই বাংলাদেশের মানুষের কাছে গ্রহণযোগ্যতা হারিয়েছে। তাদেরই তথ্য উপাত্ত নিয়ে মানবাধিকার পরিস্থিতির ওপর বাংলাদেশের প্রেক্ষাপটে রিপোর্ট প্রকাশ করেছে যুক্তরাষ্ট্র। তারা আগেও বাংলাদেশের পরিস্থিতির ওপর একপেশে রিপোর্ট প্রকাশ করেছে। যুক্তরাষ্ট্রের এ ধরনের মানবাধিকার প্রতিবেদন এরই মধ্যে বিশ্বব্যাপী গ্রহণযোগ্যতা হারিয়েছে। এবারও তারা যে রিপোর্ট প্রকাশ করেছে তা একপেশে। আমরা একে কোনোভাবেই গ্রহণ করতে পারি না।

যুক্তরাষ্ট্রের সঙ্গে বাংলাদেশের সম্পর্ক অত্যন্ত চমৎকার উল্লেখ করে তথ্যমন্ত্রী এ সময় আরও বলেন, বাংলাদেশের জঙ্গিবাদ ও সন্ত্রাসবাদ দমনের ক্ষেত্রে দুই দেশ একসঙ্গে কাজ করছে। ভবিষ্যতেও আমরা এ ক্ষেত্রে একসঙ্গে কাজ করতে চাই। আমাদের এই কার্যক্রম আরও দৃঢ় করতে চাই।

সভায় বক্তব্য দেন উপজেলা কৃষক লীগ সভাপতি আব্দুল মান্নান তালুকদার, যুবলীগের সভাপতি শামসুদ্দোহা সিকদার আরজু, স্বেচ্ছাসেবক লীগ সভাপতি নাছির উদ্দিন রিয়াজ, তাঁতীলীগ আহ্বায়ক মোরশেদ তালুকদার, ছাত্রলীগ সভাপতি নুরুল আলম, মহিলা আওয়ামী লীগের সভাপতি পলাশী মুৎসুদ্দী ও যুব মহিলা লীগের আহ্বায়ক অ্যাডভোকেট রাহেলা চৌধুরী রেখা।