পদ্মাসেতুর ৩.৯ কিলোমিটার দৃশ্যমান

ঢাকানিউজ ডেস্ক: শরীয়তপুরের জাজিরা প্রান্তে পদ্মাসেতুর ২৬তম স্প্যান ‘৫-ডি’ সেতুর ২৮ ও ২৯ নম্বর পিলারের উপর স্থাপন করা হয়েছে। এতে সেতুর ৩.৯ কিলোমিটার (৩ হাজার ৯শ’ মিটার) দৃশ্যমান হয়েছে।
সেতুতে এই স্প্যানটি বসানোর পর আর মাত্র ১৫টি স্প্যান বসানো বাকী থাকলো। অর্থ্যাৎ ৬.১৫ কিলোমটার সেতুর ২.২৫ কিলোমিটার বাকি রয়েছে। ২৫তম স্প্যান বসানোর ১৮দিনের মাথায় এই ২৬তম স্প্যানটি বসানো সম্ভব হয়েছে।
আজ সকাল ৯টা ৯ মিনিটের দিকে স্প্যানটি বসানো সম্পন্ন হয়। মূল সেতুর উপ-বিভাগীয় প্রকৌশলী হুমায়ুন কবির এই তথ্য নিশ্চিত করে জানান, এর আগে সোমবার সকাল সাড়ে ৮টায় মাওয়ার কনস্ট্রাকশন ইয়ার্ড থেকে ধূসর রঙের ১৫০ মিটার দৈর্ঘ্যের ৩ হাজার ১৪০ টন ওজনের স্প্যানটিকে নিয়ে রওনা হয়। ৩৬শ’ টন ধারণক্ষমতার ভাসমান ক্রেন ‘তিয়ান ই’ স্প্যানটি বহন করে নিয়ে আসে ২৮ নম্বর পিলারের কাছে।
প্রকৌশলীরা জানান, ভাসমান ক্রেনটি নোঙর করে পজিশনিং করে ইঞ্চি ইঞ্চি মেপে স্প্যানটিকে তোলা হয় পিলারের উচ্চতায়। এরপর দুই পিলারের বেয়ারিংয়ের ওপর রাখা হয় স্প্যানটিকে। খুঁটিনাটি বিষয়গুলো আগে থেকেই বিশেষজ্ঞ প্যানেল দ্বারা পর্যবেক্ষণ করা হয়।
করোনাভাইরাসের কারণে নববর্ষের ছুটিতে গিয়ে চীনে বেশকিছু কর্মী আটকা পড়লেও সেতুর কাজ এগিয়ে চলছে। একের পর এক স্প্যান বসিয়ে এভাবেই স্বপ্নের পদ্মাসেতু নির্মাণ করা হচ্ছে।
এসজেই,ঢাকা