হজের তিনটি প্যাকেজ: সর্বনিম্ন প্যাকেজ ৩ লাখ ১৭ হাজার

নিউজ ডেস্ক:   চলতি বছর সরকারির পাশাপাশি বেসরকারিভাবে হজ পালন করা যাবে তিনটি পৃথক প্যাকেজের অধীনে। বৃহস্পতিবার রাজধানীর নয়াপল্টনের একটি হোটেলে হজ এজেন্সিস অ্যাসোসিয়েশন অব বাংলাদেশের (হাব) সভাপতি এম শাহাদাত হোসাইন তসলিম ‘বেসরকারি ব্যবস্থাপনায় হজ প্যাকেজ-২০২০’ ঘোষণা করেন।

বেসরকারিভাবে নির্ধারিত সাধারণ ও ইকোনোমি প্যাকেজের পাশাপাশি সুযোগ-সুবিধার উপর ভিত্তি করে হজ এজেন্সিগুলো আরো একটি প্যাকেজ ঘোষণা করবে। ‘সাধারণ’ প্যাকেজের অধীনে হজ পালনে ব্যয় ধরা হয়েছে ৩ লাখ ৬১ হাজার ৮০০ টাকা এবং ‘ইকোনোমি’ প্যাকেজে ব্যয় ৩ লাখ ১৭ হাজার টাকা।

উল্লেখ্য, চাঁদ দেখা সাপেক্ষে আগামী ৩০ জুলাই পবিত্র হজ অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে। এ বছর বাংলাদেশ থেকে সর্বমোট ১ লাখ ৩৭ হাজার ১৯৮ মুসল্লি হজ পালন করবেন বলে জানা গেছে। এর মধ্যে সরকারি ব্যবস্থাপনায় যাবেন ১৭ হাজার ১৯৮ জন এবং বেসরকারি ব্যবস্থাপনায় ১ লাখ ২০ হাজার ধর্মপ্রাণ মুসল্লি।

এর আগে, গত সোমবার মন্ত্রিসভায় অনুমোদন পায় ‘হজ প্যাকেজ, ১৪৪১ হিজরি/২০২০ খ্রিস্টাব্দ’। এবার সরকারি ব্যবস্থাপনায় তিনটি পৃথক প্যাকেজের অধীনে হজ পালনের সুযোগ পাবেন দেশের মুসল্লিরা। সেই হিসেবে প্যাকেজ-১ এর অধীনে ৪ লাখ ২৫ হাজার টাকা এবং প্যাকেজ-২ এর অধীনে ৩ লাখ ৬০ হাজার টাকা খরচ করতে হবে এবং প্যাকেজে-৩ এ ব্যয় ধরা হয়েছে ৩ লাখ ১৫ হাজার টাকা।