নতুন প্রজন্মকে বিশ্বের সঙ্গে তাল মিলিয়ে গড়ে তুলতে চাই: প্রধানমন্ত্রী

নিউজ ডেস্ক:   প্রজন্মকে বিশ্বের সঙ্গে তাল মিলিয়ে গড়ে তোলার প্রত্যাশা জানিয়ে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, আমরা তাদের এমনভাবে গড়ে তুলতে চাই, যাতে তারা প্রতিযোগিতমূলক বিশ্বের সঙ্গে তাল মিলিয়ে এগিয়ে যেতে পারে। এজন্য প্রথমত প্রযুক্তি শিক্ষা একান্ত দরকার। দ্বিতীয়ত, কর্মসংস্থান ও কর্মদক্ষতা বাড়ানোর জন্য নতুন নতুন ক্ষেত্র প্রয়োজন।

তিনি বলেন, এজন্য আমরা ক্ষমতায় আসার পর যেসব খাত সরকারি ছিল সেগুলো উন্মুক্ত করে দেই। দেশের উন্নয়নে বহুমুখী পদক্ষেপও নিয়েছি।

বুধবার সকালে গণভবন থেকে ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে রাজশাহীতে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব হাইটেক পার্কে শেখ কামাল আইটি ইনকিউবেটর অ্যান্ড ট্রেনিং সেন্টার উদ্বোধনকালে এসব কথা বলেন প্রধানমন্ত্রী।

এসময় সাত জেলা ও ২৩ উপজেলায় শতভাগ বিদ্যুতায়ন এবং ফেনীতে ভারি জ্বালানি তেলচালিত ১১৪ মেগাওয়াট বিদ্যুৎ কেন্দ্রেরও ‍উদ্বোধন করেন প্রধানমন্ত্রী।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, রাজশাহী সব সময় অবহেলিত ছিল। রাজশাহী থেকে আমরা ভোট কম পেলেও এখানকার উন্নয়নে সবসময় অবদান রেখেছি। এই ট্রেনিং সেন্টারও রাজশাহীর আর্থসামাজিক উন্নয়নে অবদান রাখবে। প্রযুক্তি খাতের সম্ভাবনাকে বাড়িয়ে তুলবে।

প্রায় ৭২ হাজার বর্গফুটের শেখ কামাল আইটি ইনকিউবেটর ও ট্রেনিং সেন্টারে উচ্চ মানসমৃদ্ধ স্টার্ট-আপ, বৃষ্টির পানিতে ফসল ফলানো ও নবায়নযোগ্য শক্তির উৎসসহ বহুমুখী প্রশিক্ষণের ব্যবস্থা থাকবে।

এ আইটি সেন্টার দেশের বিশেষ করে উত্তারাঞ্চলে তথ্য ও প্রযুক্তি জ্ঞানভিত্তিক সমাজ ব্যবস্থা ও কর্মসংস্থান সৃষ্টিতে ভূমিকা রাখবে বলে আশা প্রকাশ করেছে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব হাইটেক পার্ক কর্তৃপক্ষ।

আইসিটি বিভাগের অধীনে বাংলাদেশ হাইটেক পার্ক কর্তৃপক্ষ রাজশাহীর পবা উপজেলার নবীনগরে ৩০ দমমিক ৬৭ একর জমির ওপর বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব হাইটেক পার্ক বাস্তবায়ন করছে।

শতভাগ বিদ্যুতায়নের আওতায় আসা দেশের সাত জেলার মধ্যে রয়েছে- ঢাকা, ফেনী, গোপালগঞ্জ, নাটোর, পাবনা, জয়পুরহাট ও মেহেরপুর।

উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে অন্যদের মধ্যে বক্তব্য দেন প্রধানমন্ত্রীর রাজনৈতিক উপদেষ্টা এইচটি ইমাম, প্রধানমন্ত্রীর জ্বালানি উপদেষ্টা ড. তৌফিক-ই-এলাহী চৌধুরী, সাবেক পররাষ্ট্রমন্ত্রী এএইচ মাহমুদ আলী, বিদ্যুৎ, জ্বালানি ও খনিজ সম্পদ মন্ত্রণালয়ের প্রতিমন্ত্রী নসরুল হামিদ, আইসিটি বিভাগের প্রতিমন্ত্রী জুনায়েদ আহমেদ পলক ও পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী এম শাহরিয়ার আলম।

এসময় রাজশাহী থেকে ভিডিও কনফারেন্সে যুক্ত হন রাজশাহী সিটি মেয়র এএইচএম খায়রুজ্জামান লিটন, বিভাগীয় কমিশনার খোন্দকার হুমায়ন কবীর, জেলা প্রশাসক মো. হামিদুল হকসহ বিভিন্ন দফতরের সরকারি কর্মকর্তা-কর্মচারী, উদ্যোক্তাসহ বিভিন্ন শ্রেণি-পেশার মানুষ।

প্রধানমন্ত্রীর মুখ্য সচিব ড. আহমেদ কায়কাউসের সঞ্চালনায় অনুষ্ঠানে আইসিটি বিভাগের সিনিয়র সচিব এনএম জিয়াউল আলম ও বিদ্যুৎ বিভাগের সচিব ড. সুলতান আহমেদ নিজ নিজ বিভাগের পক্ষ থেকে পাওয়ার পয়েন্ট উপস্থাপনা করেন।