মণিসিংহ-মোজাফ্ফর- ফরহাদ-মানিক স্মরণ আয়োজন অনুষ্ঠিত

বিশেষ প্রতিবেদক: ৮ ফেব্রুয়ারি শনিবার বিশেষ গেরিলা মুক্তিযোদ্ধা বাহিনীর উদ্যোগে মুক্তিযুদ্ধকালীন সরকারের দুই উপদেষ্টা কমিউনিষ্ট পার্টির সাবেক সভাপতি জননেতা কমরেড মণি সিংহ ও ন্যাশনাল আওয়ামী পার্টির সাবেক সভাপতি অধ্যাপক মোজাফফর আহমেদ এবং মুক্তিযুদ্ধের অন্যতম দুই শীর্ষ সংগঠক কমিউনিষ্ট পার্টির সাবেক সভাপতি মোহাম্মদ ফরহাদ, কমিউনিষ্ট পার্টির সাবেক সভাপতি ও গণফোরামের সাবেক সাধারণ সম্পাদক সাইফ উদ্দিন আহমদ মানিক স্মরণ আয়োোজন সংগঠনের আহবায়ক মুক্তিযোদ্ধা খান সিদ্দিকুর রহমানের সভাপতিত্বে জাতীয় প্রেসক্লাবে অনুষ্ঠিত হয় । শোক প্রস্তাব পাঠ করেন সাংবাদিক চপল বাশার । অনুষ্ঠান পরিচালনা করেন সাবেক ছাত্রনেতা, সাংবাদিক ও গণফোরাম নেতা লতিফুল বারী হামিম।

স্মরণ আয়োোজনে প্রধান অতিথির বক্তব্যে পংকজ ভট্টাচার্য বলেন এদেশের প্রগতিশীল ও অসাম্প্রদায়িক ধারার আন্দোলনে এ চার নেতা স্মরণীয় ও অগ্রগামী ছিলেন । তারা আমৃত্যু এদেশের কৃষক, শ্রমিক মেহনতি তথা খেত মজুর ও শোষিত নির্যাতিত মানুষের পক্ষে সংগ্রাম করে গেছেন। তাদের হাত ধরে আমরা রাজনীতি শিখেছি । দেশ মাতৃকার জন্য তাদের ত্যাগ অপরিসীম। মণি সিংহ ও অধ্যাপক মোজাফফর আহমেদ ধর্মের ভিত্তিতে স্বাধীন হওয়া পাকিস্তান রাষ্ট্রে অসংখ্য আন্দোলন সংগ্রামে নেতৃত্ব দিয়েছেন ।

তিনি আরো বলেন বঙ্গবন্ধু ভাসানীসহ অন্যান্য জাতীয় নেতার সাথে একত্রে ৬দফা ও ১১দফা আন্দোলনের সূচনা করেন । ৬দফা ও ১১দফা আন্দোলনের সাথে যুক্ত হন ফরহাদ ও মানিক ভাই । স্বাধীনতা সংগ্রাম ও মুক্তিযুদ্ধের এ সংগ্রামে অন্যের মত আমিও যুক্ত হই এ মিছিলে। পাকিস্তানী সামরিক শাসকদের রক্ত চক্ষুকে উপেক্ষা করে বছরের পর বছর জেল খেটে এবং বছরের পর বছর আত্মগোপনে থেকেও তাদের কাছে আত্ব সমর্পন করেনি । স্বাধীন বাংলাদেশ ছিনিয়ে আনার যুদ্ধে তারা ছিলেন অগ্রণী । তাদের সংগ্রামী ভূমিকার কথা বাঙালী জাতির ইতিহাসে স্বর্ণাক্ষরে লেখা থাকবে ।

বক্তব্যে ডা: ফওজিয়া মোসলেম বলেন ছা্ত্র ইউনিয়নের রাজনীতি তথা ১১দফা আন্দোলনের সময় এই নেতাদের সংস্পর্শে আসি।তাদেরই অনুপ্রেরণায় আমি মুক্তিযুদ্ধে অংশগ্রহণ করি এবং বিভিন্ন ক্যাম্পে চিক্যিসা সেবা প্রদান করি।

ডা: দিবালোক সিংহ বলেন, আমার বাবা কমরেড মনিসিংহ শোষিত, নির্যাতিত মেহনতি মানুষের সমাজ প্রতিষ্ঠার জন্য আজীবন সংগ্রাম করে গেছেন। বাবা ও মাকে দেখেছি দলের নেতাকর্মীদের সার্বক্ষনিক যোগাযোগ রাখতেন। যাদের নিয়ে আজকের এই সভা তারা সবাই আমার পাথেয়।

সভায় আরো বক্তব্য রাখেন আব্দুল হালিম চৌধুরী, কামরুল আহসান খান, ফজলুল হক সরকার, কাজী রইছুল হক মাসুক, আবদুল গনি, ফজলুল হক, আবু তাহের প্রমূখ।