মাদ্রাসা শিক্ষাকে খাটো করে দেখার সময় শেষ: আলহাজ্ব মহসিন

এম বেলাল উদ্দিন, রাউজান প্রতিনিধি: আঞ্জুমানে রহমানিয়া আহমদিয়া সুন্নিয়া ট্টাষ্টের সিনিয়র ভাইস প্রেসিডেন্ট আলহাজ্ব মুহাম্মদ মহসিন বলেছেন মাদ্রসা শিক্ষা হচ্ছে ইককাল ও পরকাল উভয়ের জন্য। বর্তমান মাদ্রাসা শিক্ষার্থীরা সরকারী বেসরকারী সংস্থা সহ স্কুল কলেজ বিশ্ববিদ্যালয়ের মত বড় বড় জায়গায় প্রতিযোগীতা করে চাকুরী করছে। মাদ্রাসার ছাত্র-ছাত্রীরা কোন অংশে পিছে নেই।তিনি বলেন মাদ্রাসা ছাত্ররা এদেশে নেতৃত্ব দেওয়ার মত যোগ্যতা অর্জন করছে। মাদ্রাসাকে যারা অবহেলার চোখে দেখে তারা ভোগার স্বর্গে বাস করে উল্লেখ করে তিনি বলেন মাদ্রাসা ছাত্ররা একদিন বিশ্বে নেতৃত্ব দেবে। মাদ্রাসা শিক্ষাকে খাটো করে দেখার সময় শেষ।

তিনি বলেন সারা দুনিয়ার মুসলমানরা মাদ্রাসা শিক্ষাকে প্রধান্য দেবে এ সময় আর বেশি দুরে নয়। তিনি বৃহস্পতিবার রাতে রাউজান উত্তরসর্তা গাউছিয়া হাফেজিয়া সিনিয়র মাদ্রাসায় ৪৮ তম সালানা জলসায় প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখছিলেন। এতে সভাপতিত্ব করবেন চিকদাইর ছুফিয়া নূরীয়া দরবারের পীর সাজ্জাদানশীন আলহাজ্ব এডভোকেট মুহাম্মদ আবু বকর সিদ্দীকি।

প্রধান বক্তা ছিলেন চট্টগ্রাম জামেয়া আহমদিয়া সুন্নিয়া আলিয়ার শায়খুল হাদীস আলহাজ্ব মুফতি ওবাইদুল হক নঈমী (মা.জি.আ)। মাদ্রাসার আরবি প্রভাষক আল্লামা জসিম উদ্দিন আবেদীর সঞ্চালনায় বিশেষ মেহমান ছিলেন শয়খুল হাদীস আলহাজ্ব আল্লামা সোলায়মান আনসারী, ছিপাতলী আলিয়ার অধ্যক্ষ আলহাজ্ব আল্লামা আবুল ফারাহ মুহাম্মদ ফরিদ উদ্দিন,গহিরা আলিয়ার অধ্যক্ষ আলহাজ্ব আল্লামা ইব্রাহীম নঈমি, রাউজান উপজেলা জমিয়তুল মোদার্রেছীন সভাপতি অধ্যক্ষ হাফেজ আবু জাফর সিদ্দীকি। শুভেচ্ছা বক্তব্য রাখেন মাদ্রাসা পরিচালনা কমিটির সভাপতি আলহাজ্ব মুহাম্মদ ইকবাল চৌধুরী ও বার্ষিক প্রতিবেদন পাঠ করেন মাদ্রাসা অধ্যক্ষ আলহাজ্ব আমীর আহমদ আনোয়ারী।

সকালে পুরস্কার বিতরণ অনুষ্টানে উদ্বোধক ছিলেন মার্টিন গ্রুপের চেয়ারম্যান আলহাজ্ব জহুরুল ইসলাম সিদ্দীকি। প্রধান অতিথি ছিলেন উপজেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি মুক্তিযোদ্ধা আলহাজ্ব কাজী এম আবদুল ওয়াহাব। বিশেষ অতিথি ছিলেন ডাক্তার এম এ জাফর, আলহাজ্ব মফজল আহমদ মাষ্টার, লায়ন মুহাম্মদ আলী, আওয়ামীলীগ নেতা এস এম বাবর, সাংবাদিক এম বেলাল উদ্দিন, মাওলানা নুরুল ইসলাম নক্সবন্দি, মাওলানা মনসুর নেজামী, মাওলানা আশরাফ উদ্দিন ইয়াছিন। এতে শতাধিক ছাত্র-ছাত্রীকে পুরস্কার তুলে দেন অতিথিবৃন্দ। খতমে কুরআন, খতমে ছহীহ বুখারী, খতমে গাউছিয়া, খতমে খাজেগান, হিফয সমাপ্ত ছাত্রদের দস্তারে ফজিলত, মিলাদ কিয়াম মোনাজাত,তাবরুক বিতরনের মাধ্যমে অনুষ্টান শেষ হয়।

জাহিদ/ঢাকানিউজ২৪ডটকম।