৭ দিনে হাসপাতাল নির্মাণ করছে চীন

নিউজ ডেস্ক:    করোনাভাইরাসে আক্রান্ত রোগিদের সেবায় মাত্র সাত দিনে এক হাজার শয্যার একটি হাসপাতাল নির্মাণ করছে চীন। দেশটির হুয়ান শহরের কেন্দ্রস্থলে ২৫ হাজার বর্গমিটার এলাকাজুড়ে এটি নির্মাণ করা হচ্ছে।

গতকাল শুক্রবার চীনের রাষ্ট্রীয় সংবাদমাধ্যম জিনহুয়ার এক প্রতিবেদনে বিষয়টি জানানা হয়। এতে বলা হয়, করোনাভাইরাস প্রাদুর্ভাব প্রতিরোধে হুয়ান শহরের কেন্দ্রস্থলে মাত্র ৭ দিনে একটি হাসপাতাল নির্মাণ করা হচ্ছে। ২৫ হাজার বর্গমিটার এলাকায় এক হাজার শয্যার হাসপাতালটি নির্মাণ করা হবে।

প্রতিবেদনে বলা হয়, শহরের বিভিন্ন হাসপাতালগুলোতে মানুষের উপচে পড়া ভিড় ও ওষুধের সংকট দেখা দেওয়ায় জরুরিভিত্তিক হাসপাতালটি নির্মাণ করা হচ্ছে। ইতিমধ্যে এর কাজ শুরু হয়েছে।

প্রতিবেদনটিতে আরও বলা হয়, হাসপাতালটিতে সেনাবাহিনীর ৪০ জন চিকিত্সক নিবিড় পরিচর্যা কেন্দ্রে (আইসিইউ) কাজ করবেন।

দেশটির রাষ্ট্রীয় টেলিভিশন সিসিটিভিও বিষয়টি নিয়ে এক প্রতিবেদন প্রকাশ করে। এতে একটি ভিডিওচিত্র প্রকাশিত হয়, যেখানে এক ডজনেরও বেশি এক্সেভেটর ট্রাকের মাধ্যমে মাটি খনন করতে দেখা গেছে।

করোনাভাইরাসে আক্রান্ত চীনের হুবেই ও হুয়ান শহরসহ কয়েকটি অঞ্চলে এখন পর্যন্ত প্রাণ হারিয়েছেন ৪১ জন। ভাইরাসটিতে আক্রান্ত হয়েছেন ১ হাজারেরও বেশি মানুষ। এ ছাড়া টানা কাজ করে অসুস্থবোধ করছেন অনেক চিকিৎসক ও স্বাস্থ্যকর্মী।

২০০০ সালে একই গোত্রের সার্স ভাইরাসে চীনে ৭৭৪ জনের মৃত্যু হয়েছিল, যাদের অধিকাংশই এশিয়া মহাদেশের। বিশ্লেষকরা বলছেন, নতুন ভাইরাসটির জেনেটিক কোড সার্স ভাইরাসের বেশ কাছাকাছি।

ভয়ঙ্কর এই ভাইরাস দেশটির সীমানা পেরিয়ে ছড়িয়ে পড়েছে এখন অনেক দেশেই। দক্ষিণ কোরিয়া, জাপান, সিঙ্গাপুর, হংকং, ম্যাকাউ, তাইওয়ান, থাইল্যান্ড, ভিয়েতনাম, যুক্তরাষ্ট্র ও ফ্রান্সেও প্রাদুর্ভাব ঘটেছে এই ভাইরাসের।