ইরানি ব্যবসায়ীদের ভিসা বন্ধ করে দিল যুক্তরাষ্ট্র

নিউজ ডেস্ক:   ইরানের ব্যবসায়ী ও পুজি বিনিয়োগকারীদের ভিসা দেওয়া বা তাদের ভিসা নবায়ন বন্ধ করে দেওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছে মার্কিন সরকার। গতকাল বুধবার মার্কিন অর্থ মন্ত্রণালয় দেশটির রাষ্ট্রীয় পত্রিকা ‘ফেডারেল রেজিস্টার’ -এ প্রকাশিত এক প্রজ্ঞাপনে এমন ঘোষণা দিয়েছে বলে খবর প্রকাশ করেছে ইরানের সংবাদমাধ্যম পার্স টুডে।

প্রজ্ঞাপনে বলা হয়েছে, ইরানি নাগরিক বা তাদের আত্মীয়-স্বজন এখন থেকে আর আমেরিকার কাছে ই-ওয়ান ও ই-টু ভিসার আবেদন করতে বা এ ধরনের ভিসা নবায়নের আবেদন করতে পারবেন না। বৃহস্পতিবার থেকে এ নির্দেশ কার্যকর হবে।

যুক্তরাষ্ট্রে বিদেশি বড় আকারের পুঁজি বিনিয়োগকারী ও ব্যবসায়ীদের এই দুই ধরনের ভিসা দেওয়া হয়। এই ভিসাপ্রাপ্ত ব্যক্তিরা আমেরিকায় বসবাস করা ও ব্যবসায়িক কার্যক্রম চালানোর সুযোগ পান।

মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে এ ধরনের ভিসা নিয়ে ইতিমধ্যে কত সংখ্যক ইরানি বসবাস করছেন তা স্পষ্ট নয়। তবে সংখ্যাটি অনেক কম বলে জানিয়েছে ইরানের বার্তা সংস্থা আইআরএনএ।

এর আগে গত ২০ জানুয়ারি একজন ইরানি ছাত্রের ভিসা বাতিল করে তাকে আটক করা হয়। যুক্তরাষ্ট্রের বোস্টন লোগান আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে এর প্রতিবাদ করেন অভিবাসীদের অধিকার রক্ষার আন্দোলনকারীরা। ওই ঘটনার দুদিন পরই ইরানি ব্যবসায়ীদের ভিসা দেওয়া বন্ধ করার সিদ্ধান্ত নিল ওয়াশিংটন।

পার্স টুডে জানায়,এই প্রথম ইরানি বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষার্থীদের সঙ্গে এমন আচরণ করেনি যুক্তরাষ্ট্র। কিছুদিন আগেও মার্কিন সরকার কোনো ধরনের ব্যাখ্যা না দিয়ে ২০ ইরানি শিক্ষার্থীর ভিসা বাতিল করে দিয়েছিল।

প্রসঙ্গত,গত ৩ জানুয়ারি বাগদাদের আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে মার্কিন ড্রোন হামলায় নিহত হন কুদস ফোর্সের কমান্ডার কাসেম সোলেইমানি। এরপর থেকেই যুক্তরাষ্ট্র এবং ইরানের মধ্যে উত্তেজনা বিরাজ করছে।