বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে কিশোরীকে ধর্ষণ : ধর্ষক র‍্যাবের খাঁচায়

এস আর অনি চৌধুরী :: সুনামগঞ্জের জগন্নাথপুর থেকে অপহরণ ও ধর্ষণের শিকার এক কিশোরীকে উদ্ধার করেছে র‍্যাব। এ সময় গ্রেপ্তার করা হয় অপহরণকারী এবং ধর্ষক জোবায়ের আহমেদ(৪২)। শুক্রবার গভীর রাতে র‍্যাব- ৯ এর একটি আভিযানিক দল গোপন সংবাদের ভিত্তিতে উপজেলার মহিষাকোনা গ্রামে এ অভিযান পরিচালনা করে।

র‍্যাব সূত্রে জানা যায়, গত ৯ জানুয়ারি, ২০২০ তারিখে নীলফামারি জেলা হতে কিশোরীটিকে (১৫) বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে অপহরণ করেন গ্রেপ্তারকৃত জোবায়ের। তারপর তাকে সিলেট ও সুনামগঞ্জের বিভিন্ন জায়গায় রেখে ক্রমাগত ধর্ষণ করে যেতে থাকেন। এ সময় কিশোরীটিকে ঘরে আটকে রাখা হয় যেন সে বাইরের কারো সহযোগিতা চাইতে না পারে।

গত ১৪ জানুয়ারি, ২০২০ কিশোরীর বাবা বাদী হয়ে অজ্ঞাতনামা ব্যক্তিকে আসামি করে নীলফামারির একটি থানায় অপহরণ মামলা দায়ের করেন। যার প্রেক্ষিতে অবশেষে র‍্যাব ভিক্টিম উদ্ধার ও আসামিকে গ্রেপ্তার করতে সক্ষম হয়। আসামী জোবায়ের সুনামগঞ্জ জেলার মহিষাকোনা গ্রামের মৃত মছলন্দর আলীর পুত্র।

এ প্রসঙ্গে র‍্যাব-৯ এর অপারেশন অফিসার এএসপি মোঃ আনোয়ার হোসেন শামীম জানান, গ্রেপ্তারের পর প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে আসামি জোবায়ের অপহরণ ও ধর্ষণের কথা স্বীকার করে নিয়েছে। এছাড়াও সে জানায় যে, আরো কিছুদিন ধর্ষণ করার পর তার পরিকল্পনা ছিল কিশোরীটিকে পতিতালয়ে বিক্রি করে দেওয়ার।

ব্যক্তিগত জীবনে বিবাহিত এবং সন্তানের জনক হওয়া সত্ত্বেও সে অবিবাহিত হিসেবে মিথ্যা পরিচয় দিয়ে মোবাইলে এই প্রেমের সম্পর্ক গড়ে তোলে এবং এর পূর্বেও সে একাধিক মেয়েকে এমন মিথ্যা পরিচয় দিয়ে প্রেমের জালে ফেলেছে বলেও জিজ্ঞাসাবাদে জানায়। এ ধরণের অপরাধ প্রতিরোধে পারিবারিক শিক্ষা ও সামাজিক সচেতনতাবোধ বৃদ্ধির পরামর্শও দেন এই র‍্যাব কর্মকর্তা।

আটক আসামি এবং উদ্ধারকৃত কিশোরীকে পরবর্তী আইনগত কার্যক্রমের জন্য সংশ্লিষ্ট থানা পুলিশের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে বলে র‍্যাব সূত্রে জানা যায়।