বরফে চাপা পড়ার ১৮ ঘণ্টা পর জীবিত ফিরলেন তরুণী

 অনলাইন ডেস্ক ১৭:২২, ১৬ জানুয়ারি, ২০২০

পাকিস্তান শাসিত কাশ্মীরে তুষারধ্বসের ঘটনায় বরফের নিচে ১৮ ঘণ্টা আটকে থাকার পর এক তরুণীকে জীবিত উদ্ধার করা হয়েছে। প্রচণ্ড তুষারপাত ও তুষার-ধ্বসে নাকাল ভূস্বর্গ কাশ্মীরের নির্লোম ভ্যালির বাকওয়ালী গ্রামে এ ঘটনা ঘটেছে।

 

উদ্ধার হওয়া তরুণীর নাম সামিনা। তুষারধ্বসের সময় পরিবারের সদস্যদের সঙ্গে তাদের তিন তলা বাড়িতে গোল হয়ে আগুন পোহাচ্ছিলেন সামিনা। ধ্বসের ফলে তাদের বাড়িটি বিধ্বস্ত হয়। এসময় বাড়ির একটি কক্ষে আটকা পড়েন সামিনা। এ ঘটনায় তার পা ভেঙ্গে যায়, মুখে আঘাত পাওয়ার ফলে রক্তক্ষরণ হতে থাকে ফলে বাঁচার আশা ছেড়ে দেন তিনি। সামিনা বলেন, ‘আমি ভেবেছিলাম ওখানেই আমার মৃত্যু হবে।’

মেয়েকে ফিরে পাবার আশা ছেড়ে দিয়েছিলেন সামিনার বাবা-মাও। ঘটনার ১৮ ঘণ্টা পর সামিনাকে উদ্ধার করে হাসপাতালে পাঠানো হয়। বর্তমানে মুজাফফরাবাদের একটি হাসপাতালে চিকিৎসাধীন আছেন ওই তরুণী।

পাকিস্তানের দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে, তুষারধ্বসের ঘটনায় অন্তত একশ মানুষ মারা প্রাণ হারিয়েছেন। তাদের মধ্যে কেবল নিলম ভ্যালিতে ৭৪ জন মারা গেছেন।

এদিকে পার্শ্ববর্তী দেশ আফগানিস্তান ও ভারত নিয়ন্ত্রিত জম্মু ও কাশ্মীরেও তুষারধ্বসে বেশ কয়েকজন প্রাণ হারিয়েছেন।

চিফ রিপোর্টার, সাইফ শোভন, ঢাকানিউজ২৪.কম