খালেদা জিয়ার জীবন বিপন্নের চক্রান্ত হচ্ছে : রিজভী

নিউজ ডেস্ক:   বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়ার জীবন বিপন্ন করার ষড়যন্ত্র হচ্ছে বলে মন্তব্য করেছেন বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী।

মঙ্গলবার এক বিক্ষোভ মিছিল শেষে সংক্ষিপ্ত পথসভায় তিনি এসব কথা বলেন। খালেদা জিয়ার নিঃশর্ত মুক্তি এবং বিএনপির ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমানের বিরুদ্ধে দায়েরকৃত মিথ্যা মামলা ও সাজা প্রত্যাহারের দাবিতে বিএনপির অঙ্গ ও সহযোগী সংগঠনের উদ্যোগে এই মিছিল হয়।

রাজধানীর শান্তিনগরস্থ কর্নফুলী গার্ডেন সিটির সামনে থেকে একটি বিক্ষোভ মিছিল শুরু হয়ে কয়েকটি এলাকা প্রদক্ষিণ করে। বিক্ষোভ মিছিলে নেতৃত্ব দেন রুহুল কবির রিজভী। মিছিলে অন্যদের মধ্যে অংশগ্রহণ করেন-ঢাকা মহানগর দক্ষিণ বিএনপির যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক আরিফুর রহমান নাদিম, স্বেচ্ছাসেবক দল ঢাকা মহানগর দক্ষিণের সাধারণ সম্পাদক নজরুল ইসলাম, যুবদল নেতা সোহেল আহমেদ, স্বেচ্ছাসেবক দল নেতা ডা. জাহেদুল কবির জাহিদ, মোর্শেদ আলম, বাবুল সারেং, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রদল নেতা রাজু আহমদ, ছাত্রদল নেতা জাভেদ ইকবাল, মামুন হোসেন ভূঁইয়া, ফজলুল হক নীরব, আসলাম, দুলাল, যুবদল নেতা ফারুক পাটোয়ারীসহ বিপুল সংখ্যক নেতাকর্মী। মিছিলে নেতাকর্মীরা খালেদা জিয়ার মুক্তি ও তারেক রহমানের বিরুদ্ধে মামলা প্রত্যাহারের দাবিতে বিভিন্ন স্লোগান দেন।

রিজভী বলেন, বর্তমান শাসকগোষ্ঠী এখন এতটাই বেপরোয়া হয়ে উঠেছে যে, জনগণের আশা-আকাঙ্খাকে পদদলিত করে চট্টগ্রাম-৮ আসনে উপ-নির্বাচনে সন্ত্রাসের মাধ্যমে ভোটকেন্দ্র দখল করে সরকারদলীয় প্রার্থীকে বিজয়ী করতে যে ধরণের পেশীশক্তি প্রদর্শন করা হলো তাতে আগামী ৩০ জানুয়ারি অনুষ্ঠিতব্য ঢাকা সিটি নির্বাচন নিয়ে জনমনে গভীর শঙ্কা সৃষ্টি হয়েছে। নির্বাচন কমিশন নিজের সাংবিধানিক স্বাধীনতা বিসর্জন দিয়ে সরকারের কাছে আত্মসমর্পণ করার জন্য কলুষিত নির্বাচন ও ভোটের কারণে দেশে চরম রাজনৈতিক অসুস্থতা দেখা দিয়েছে।

রিজভী বলেন, এই ভয়াবহ নৈরাজ্যকর পরিস্থিতি থেকে উত্তরণে জাতীয়তাবাদী শক্তি জনগণকে সাথে নিয়ে বেগম খালেদা জিয়াকে কারামুক্ত করতে এখন দৃঢ়বদ্ধ। আমি অবিলম্বে বেগম খালেদা জিয়াকে তার পছন্দের হাসপাতালে সুচিকিৎসার সুযোগসহ নিঃশর্ত মুক্তির জোর দাবি জানাচ্ছি। পাশাপাশি কারাবন্দী সকল নেতাকর্মীরও নিঃশর্ত মুক্তি দাবি করছি।