ছাত্রলীগকে নীতি ও আদর্শ নিয়ে গড়ে উঠার আহ্বান প্রধানমন্ত্রীর

নিউজ ডেস্ক:  নীতি আদর্শের মধ্যদিয়ে ছাত্রলীগকে মর্যাদাপূর্ণ হওয়ার আহ্বান জানিয়েছেন আওয়ামী লীগ সভাপতি ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। শনিবার বিকেলে ছাত্রলীগের ৭২তম প্রতিষ্ঠা বার্ষিকীতে সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে বক্তব্য দিতে গিয়ে তিনি এ আহ্বান জানান।

সব আন্দোলন-সংগ্রামেই ছাত্রলীগ অগ্রনী ভূমিকা পালন করেছে উল্লেখ করে শেখ হাসিনা বলেন, যারা অবৈধ ভাবে ক্ষমতায় এসেছে সবাই ছাত্রদেরকে লাঠিয়াল বাহিনী হিসেবে ব্যবহার করেছেন।জিয়াউর রহমান থেকে খালেদা জিয়া পর্যন্ত সবাই ছাত্র সংগঠনকে ধ্বংসের চেষ্টা করেছে।

নীতি, আদর্শ ও সততা ছাড়া কোন সংগঠন গড়ে উঠতে পারে না। ছাত্রলীগের প্রতিটি নেতাকর্মীকেই বঙ্গবন্ধুর অসমাপ্ত আত্মজীবনী ও কারাগারের রোচনামচা পড়ার আহ্বান জানান প্রধানমন্ত্রী।

প্রধান অতিথীর বক্তব্যে শেষ হাসিনা বলেন, পাকিস্তানের শাসক ঘোষ্ঠির একমাত্র শত্রু ছিলেন বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান। বঙ্গবন্ধু কখনও নীতির সঙ্গে আপোষ করেননি বলেই বার বার তাকে জেলে যেতে হয়েছে। জাতির জনক বঙ্গবন্ধু কখনও নিজের জীবন নিয়ে চিন্তা করেননি। বাঙালীদের অধিকার প্রতিষ্ঠাই ছিলো তার একমাত্র লক্ষ্য। অর্থ সম্পদের দিকে না তাকিয়ে বাঙালি জাতিকে তিনি সব সময় ভালোবেসেছেন। সন্তান হিসেবে আমরাও তার কাছে তেমন কোন ভালোবাসা পায়নি।

এসময় ছাত্রলীগ নেতাদের উদ্দেশ্যে তিনি বলেন, ছাত্রলীগকে নীতি নিয়ে গড়ে উঠতে হবে। আগামী দিনে জাতীর পিতার আদর্শে এই সংগঠনকে গড়ে উঠার আহ্বান জানান শেখ হাসিনা।

অনুষ্ঠানে ছাত্রলীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি আল নাহিয়ান খান জয় ও ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক লেখক ভূট্টচার্যকে পূর্ণাঙ্গ কমিটি হিসেবে ঘোষণা দেন শেখ হাসিনা।