আগুন ধরবে না রকেটের ইঞ্জিনে!

মহাকাশে নিত্যনতুন স্যাটেলাইট, নভোযান পাঠাতে নিয়মিত গবেষণা, পরীক্ষা-নিরীক্ষা চলছে।

ইউরোপের নতুন রকেট ‘আরিয়ান ৬’ ৬০ মিটার পর্যন্ত উচ্চতা ছুঁতে পারবে। এজন্য প্রযুক্তিবিদ ও প্রকৌশলীদের উদ্ভাবনী উৎপাদন প্রক্রিয়া কাজে লাগাতে হয়েছে। রকেটের ট্যাংকগুলো তথাকথিত ‘ফ্রিকশন স্টার ওয়েল্ডিং’ পদ্ধতিতে নির্মিত।

প্রবল চাপের মধ্যে ঘর্ষণের মাধ্যমে অত্যন্ত মসৃণ ও টেকসইভাবে সবকিছু জোড়া দেয়া যায়। ৫০০ ডিগ্রি সেলসিয়াস তাপমাত্রা ছুঁলে এই প্রক্রিয়া কাজে লাগানো যায়।

‘আর্ক ওয়েল্ডিং’ পদ্ধতিতে যে তাপমাত্রার প্রয়োজন হয়, এটি সে তুলনায় এক-চতুর্থাংশ কম। ট্যাংকগুলো ইঞ্জিনের অংশ, যেটি রকেটের উপরের স্তরে বসানো থাকে। বিখ্যাত গবেষক ও ডিজাইনার লিওনার্দো দ্য ভিঞ্চির সম্মানে সেটির নাম রাখা হয়েছে ‘ভিঞ্চি’।

বিজ্ঞানীরা বলছেন, এমন ইঞ্জিনে কখনও আগুন ধরা সম্ভব নয়। ফলে বিভিন্ন উচ্চতায় স্যাটেলাইট কক্ষপথে ছাড়া যায়। রকেটটি উৎক্ষেপণের আগেই এর অধিক উন্নতিতে কাজ করছেন বিশেষজ্ঞরা।

তারা বলছেন, ভবিষ্যতের ইঞ্জিন উৎক্ষেপের পর আবার পৃথিবীতে ফিরে আসবে এবং সেটি পুনর্ব্যবহার করা যাবে। ডয়চে ভেলে।

চিফ রিপোর্টার, সাইফ শোভন, ঢাকানিউজ২৪.কম