নাগরিকত্ব আইনের প্রতিবাদে সহিংসতায় নিহত বেড়ে ৯

নিউজ ডেস্ক:  ভারতের উত্তর প্রদেশে নাগরিকত্ব আইনের প্রতিবাদে চলমান বিক্ষোভে সহিংসতায় নিহতের সংখ্যা বেড়ে নয়জনে দাঁড়িয়েছে।শুক্রবার ১৪৪ ধারা অমান্য করে রাস্তায় নামে বিক্ষোভকারীরা। এদিন গুলিতে প্রাণ হারিয়েছেন নয়জন। খবর এনডিটিভির।রাজ্য পুলিশ জানিয়েছে, এ নিয়ে বিক্ষোভ সংশ্লিষ্ট ঘটনায় রাজ্যে নিহতের সংখ্যা ১১ জনে দাঁড়াল।পুলিশের দাবি, শুক্রবার বিক্ষোভকারীদের সঙ্গে সংঘর্ষে ৫০ পুলিশ সদস্য আহত হয়েছেন। তবে নিহতদের কেউই পুলিশের গুলিতে মারা যায়নি। গুলির ঘটনা ঘটে থাকলে তা বিক্ষোভকারীদের দিক থেকে হয়েছে বলে দাবি করেছেন রাজ্য পুলিশের মহাপরিচালক ওপি সিং।

বৃহস্পতিবার উত্তর প্রদেশের লখনৌ ও সামবালে সহিংসতায় তিনজনের মৃত্যু হয়। সহিংসতায় জড়িত থাকার অভিযোগে প্রায় ৩৫০ জনকে আটক করে পুলিশ।

শুক্রবার জুমার নামাজ ঘিরে নেওয়া হয় কড়া নিরাপত্তা ব্যবস্থা। সভা সমাবেশের ওপর জারি করা হয় নিষেধাজ্ঞা। তা অমান্য করে নামাজের পর রাজ্যের ১৩টি জেলার হাজার হাজার মানুষ নামে রাস্তায়।

শুক্রবার সন্ধ্যায় রাজ্য পুলিশের পক্ষ থেকে ছয় বিক্ষোভকারীর মৃত্যুর খবর নিশ্চিত করা হয়। পরে আরও তিনজনের মৃত্যুর খবর দেয় প্রশাসন।

ভারতে গত ১২ ডিসেম্বর কার্যকর হয়েছে নাগরিকত্ব সংশোধন আইন। এতে বাংলাদেশ, আফগানিস্তান ও পাকিস্তান থেকে নিপীড়নের মুখে পালিয়ে যাওয়া হিন্দু, বৌদ্ধ, শিখ, জৈন, পার্সি ও খ্রিস্টানদের নাগরিকত্ব দেওয়ার কথা বলা হয়েছে।

বিতর্কিত এই আইন পাস করার পর থেকেই ভারতের বিভিন্ন স্থানে সহিংস বিক্ষোভ শুরু হয়েছে।