মার্কিন নিষেধাজ্ঞা হচ্ছে নীরব যুদ্ধ ও সন্ত্রাসবাদ: ইরান

নিউজ ডেস্ক:   মার্কিন সরকার তেহরানের ওপর যে নির্বিচার নিষেধাজ্ঞা দিয়ে চলেছে তা নীরব যুদ্ধ এবং সন্ত্রাসবাদের চরম নজির। ইরান সরকারের মুখপাত্র আলী রাবিয়ি সোমবার এ মন্তব্য করেছেন।

এক সংবাদ সম্মেলনে আলী রাবিয়ি বলেন, সত্যিকার অর্থে আমেরিকা শুধু নিষেধাজ্ঞাকে যুদ্ধের বিকল্প হিসেবে বেছে নেয় নি বরং তাদের কাছে আধুনিক বিকল্প হচ্ছে গণহত্যা এবং সন্ত্রাসবাদ।

তিনি আরও বলেন, শত্রুতাপূর্ণ এই দুটি পথের মধ্যে পার্থক্য এটুকুই যে, আন্তর্জাতিক নিয়ম অনুসারে যুদ্ধের ক্ষেত্রে বেসামরিক নাগরিক হত্যা করার নিয়ম নেই। নিষেধাজ্ঞা আরোপ করে আমেরিকা সেই ঝামেলা থেকে মুক্তি পেয়েছে এবং তারা এখন অর্থনৈতিক কর্মকাণ্ড, চিকিৎসা সামগ্রী ও খাদ্য সরবরাহের ওপর নিষেধাজ্ঞা আরোপ করে বেসামরিক জনগণকে হত্যার ব্যবস্থা করেছে।

এছাড়া ইরান সরকারের মুখপাত্র বলেন, ওয়াশিংটন যুদ্ধের পরিবর্তে নিষেধাজ্ঞা আরোপের পথ বেছে নিয়েছে এই কারণে যে, তারা জানে নিষেধাজ্ঞার প্রকৃত শিকার যে বেসামরিক লোকজন তাদেরকে আন্তর্জাতিক আইন রক্ষা করতে পারে না।

গত শনিবার মার্কিন অর্থমন্ত্রী স্টিভেন নুচিন দাবি করেন, আন্তর্জাতিক সামরিক সংঘাত এড়ানোর জন্য তারা নিষেধাজ্ঞার পথ বেছে নিয়েছেন। কিন্তু আলী রাবিয়ি বলেন, মার্কিনিরা ভুল করছেন এবং একই সঙ্গে তারা বিশ্বের মানুষের সঙ্গে প্রতারণা করছেন। পার্স টুডে।