নাগরিকত্ব সংশোধন বিল : আসামে কারফিউ

নিউজ ডেস্ক:   নাগরিকত্ব সংশোধন বিল নিয়ে বিক্ষোভে উত্তাল আসাম। বেশ কয়েকটি জেলায় পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে রাখতে সেখানে কারফিউ জারি করা হয়েছে। বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে ইন্টারনেট সংযোগ। গুয়াহাটি ইউনিভার্সিটি এবং কটন ইউনিভার্সিটি তাদের সব আন্ডারগ্রাজুয়েট এবং গ্রাজুয়েট পরীক্ষা স্থগিত করেছে।

এছাড়া বৃহস্পতিবার আসামের ধিব্রুগড় থেকে সব ফ্লাইট উড্ডয়ন বাতিল করেছে ইন্ডিগো বিমান সংস্থা। টাইমস অব ইন্ডিয়া জানিয়েছে, রেলওয়ের সম্পত্তি নিরাপদ রাখতে গত রাতেই উত্তরপূর্বাঞ্চলের আক্রান্ত এলাকায় আরপিএসএফের-১২ কোম্পানি মোতায়েন করা হয়। দূরপাল্লার ট্রেনগুলোকে স্টেশন থেকে সরিয়ে গুয়াহাটি নিয়ে যাওয়া হয়েছে। এছাড়া গুয়াহাটি ও কামাক্ষ্যায় আটকা পড়ে আছেন বহু ট্রেনযাত্রী।

নিরাপত্তা ইস্যুতে আসাম ও ত্রিপুরার সব যাত্রীবাহী ট্রেন স্থগিত করেছে নর্থইস্ট ফ্রন্টিয়ার রেলওয়ে। ওদিকে গুয়াহাটি ও আগরতলায় অনুষ্ঠিত হওয়ার কথা ছিল চতুর্থ দিনের জন্য রনজি ট্রফি গেমস। কিন্তু কারফিউয়ের জন্য তা স্থগিত করা হয়েছে।

প্রসঙ্গত, নাগরিক সংশোধনী বিলকে কেন্দ্র করে উত্তপ্ত হয়ে উঠেছে আসাম ও ত্রিপুরা। ভারতের সংসদে ক্ষমতাসীন দল বিজেপির উত্থাপিত নাগরিকত্ব সংশোধনী বিলের বিরুদ্ধে প্রতিবাদ করে রাস্তায় নেমেছে সাধারণ মানুষ। গত সোমবার সংসদের নিম্নকক্ষ লোকসভায় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ বিলটি উত্থাপন করেন। ক্ষমতাসীন দলের সংখ্যাগরিষ্ঠতা থাকায় বিলটি পাসে কোনো বেগ পেতে হয়নি তাদের। এরপর থেকে রাস্তায় নেমে বিক্ষোভ করেন আসাম ও ত্রিপুরার মানুষ।

গত বুধবার সংসদের উচ্চকক্ষ রাজ্যসভায় নাগরিকত্ব সংশোধনী বিলটি (সিএবি) পেশ করা হয়। সেখানেও সংখ্যাগরিষ্ঠতা পেয়েছে বিলটি।