কিছু দল নাগরিকত্ব বিল নিয়ে পাকিস্তানের ভাষায় কথা বলছে: মোদি

নিউজ ডেস্ক:  নাগরিকত্ব সংশোধনী বিল নিয়ে বিরোধীদের আচরণে ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি।বুধবার বিজেপির এক বৈঠকে তিনি বলেন, ‘কিছু দল নাগরিকত্ব সংশোধনী বিলটির বিষয়ে পাকিস্তানের মতো একই ভাষায় কথা বলছে।’ 

স্বারাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ সোমবার লোকসভায় নাগরিকত্ব সংশোধনী বিল, ২০১৯ পেশ করেন। বিলটি সেদিনই ভোটাভুটির মাধ্যমে পাস হয়। রাজ্যসভায় এই বিলটি উত্থাপনের আগে বুধবার সকালে সংসদের গ্রন্থাগার ভবনে নিজেদের রণনীতি ঠিক করতে সংসদীয় বৈঠকে বসে বিজেপি। ওই বৈঠকের সভাপতিত্ব করেন নরেন্দ্র মোদি।

সংসদীয় বৈঠকে উপস্থিত ছিলেন প্রতিরক্ষা মন্ত্রী রাজনাথ সিং, রেলমন্ত্রী পীযূষ গোয়েল, সংসদ বিষয়ক মন্ত্রী প্রহ্লাদ জোশী, তথ্যপ্রযুক্তি ও আইনমন্ত্রী রবিশঙ্কর প্রসাদ, বিদেশমন্ত্রী এস জয়শঙ্কর এবং মহিলা ও শিশু উন্নয়ন মন্ত্রী স্মৃতি ইরানীসহ শীর্ষস্থানীয় বিজেপি নেতারা।

বৈঠকে প্রধানমন্ত্রী মোদি বলেন, ‘নাগরিকত্ব বিল স্বর্ণাক্ষরে লেখা হবে, এটি ধর্মীয় নিপীড়ন থেকে পালিয়ে আসা মানুষদের স্বস্তি দেবে।’

কংগ্রেসসহ বেশ কিছু বিরোধী দল নাগরিকত্ব সংশোধনী বিলের তীব্র সমালোচনা করেছে। নাগরিকত্ব সংশোধনী বিলে অমুসলিম পাকিস্তানি, আফগান এবং বাংলাদেশিদের ভারতীয় নাগরিক করার রাস্তা সহজ করে দেওয়ার প্রস্তাব দেওয়া হয়েছে।

এই বিলটিকে বৈষম্যমূলক বলে উল্লেখ করে বিরোধীরা বলছে, ‘এটি দেশের সংবিধানের সাম্য এবং ধর্মনিরপেক্ষতার নীতিকে লঙ্ঘন করে।’