বাল্যবিয়ে প্রতিরোধে ময়মনসিংহের ১০ হাজার মসজিদে প্রচারণার প্রয়াস

ময়মনসিংহ ব্যুরো :
বাল্য বিয়ে প্রতিরোধ এবং এর কুফল সম্পর্কে সচেতনতা সৃষ্টির লক্ষে ময়মনসিংহ জেলার সাড়ে ১০ হাজার মসজিদের ইমামগণ বক্তব্য রাখবেন বলে আশা প্রকাশ করছেন ইসলামিক ফাউন্ডেশন ময়মনসিংহ বিভাগীয় পরিচালক মোঃ মাজহারুল মান্নান। ইতিমধ্যেই ইমামদের ঠিকানায় এ সংক্রান্ত একটি পত্র প্রেরণ করা হয়েছে বলে জানান পরিচালক ।
গতকাল ময়মনসিংহ জেলা পরিষদের ভাষা শহীদ আব্দুল জব্বার মিলনায়তনে এক অ্যাডভোকেসী সভায় বক্তব্য রাখতে গিয়ে মোঃ মাজহারুল মান্নান এসব তথ্য জানান।

‘পরিবার পরিকল্পনা সেবা গ্রহণ করি কৈশোরকালীন মাতৃত্ব রোধ করি’ এই প্রতিপাদ্যকে সামনে রেখে আগামী ৭ ডিসেম্বর থেকে ১২ ডিসেম্বর পর্যন্ত পরিবার কল্যাণ সেবা ও প্রচার সপ্তাহ’১৯ কার্যক্রম শুরু হচ্ছে। এ উপলক্ষে বৃহস্পতিবার দুপুরে জেলা পরিষদ শিল্পাচার্য জয়নুল আবেদীন মিলনায়তনে এডভোকেসি সভা ও প্রেসব্রিফিং হয়েছে। ময়মনসিংহ বিভাগের পরিবার পরিকল্পনা বিভাগের পরিচালক আবদুল আউয়াল-এর সভাপতিত্বে প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখেন অতিরিক্ত বিভাগীয় কমিশনার (রাজস্ব) এ এইচ এম লোকমান। বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন জেলা প্রশাসক মিজানুর রহমান, সিভিল সার্জন ডাঃ মজিবুর রহমান, সহকারী স্বাস্থ্য পরিচালক ডাঃ কামাল উদ্দিন, জেলা পরিবার করিকল্পণা বিভাগের উপ-পরিচালক আবু তাহের মোঃ এনামুর রহমান, সহকারী পরিচালক স্বাস্থ্য ডাঃ কামাল উদ্দিন, ডাঃ আব্দুর রউফ, প্রেসক্লাব ময়মনসিংহের সাধারণ সম্পাদক শামসুল আলম খান, ময়মনসিংহ বিভাগীয় প্রেসক্লাবের সাধারণ সম্পাদক মোঃ নজরুল ইসলাম ও সিটি প্রেসক্লাবের সাধারণ সম্পাদক মতিুল আলম প্রমুখ।

প্রধান অতিথি অতিরিক্ত বিভাগীয় কমিশনার লোকমান বলেন, সোনার বাংলা বিনির্মানে আমাদেরকে ছোট-বড় সবাইকে এক সাথে কাজ করতে হবে। পিয়ন, ঝাড়–দার, মালি, মুচি সবাইকে মুল্যায়ন করতে হবে। এজন্য “অ” কে বাদ দিতে হবে। অ’য়ের মধ্যে অদক্ষতা, অযোগ্যতা, অসততা, অসহিষ্ণুতা, অলসতা, অচেতনতা, অজ্ঞতা, এগুলো বাদ দিতে পারলে আমরা লক্ষ্যে পৌছতে পারবো।