‘দুই শালিকের বিয়ে’

‘দুই শালিকের বিয়ে’
মো:মুকতার আলী। 

‘দুই শালিকের বিয়ে
ধানের মুড়কি দিয়ে,
বাদ্য বাজায় টিয়ে
তার রাঙা ঠোঁট দিয়ে।

মালা গাঁথে সাতভাই চম্পা
কোকিল কুহু কুহু গায়,
শিষ দিয়ে যায় দোয়েল
নাচে ময়ূর নুপুর পায়।

ময়না এল গয়না পরে
দেখে ঘুঘু পেল লাজ,
বুলবুলিটা কোথা হতে
পেল এত সাজ?

কাঠ ঠোঁকরা লম্বা ঠোঁটে
বাজায় মধুর বাঁশি,
তাই দেখে গাছে বসে
পায়রা দিল হাঁসি।

ফিঙেটা বড়ই খুশি
মুখে নিয়ে ধানের কুঁশি,
ফিড়িং ফিড়িং নাচে,
বাবুই সাথে যে তার আছে।

পানকৌড়ি ছুটে এল
সাথে এল বুনো হাঁস,
উড়ে এল বকের সারি
সাদায় ডুবল সবুজ ঘাস।

মাছরাঙাটা রাজার বেসে
হঠাৎ করে জুটল এসে,
তাই দেখে বাজপাখিটা
মুখ লুকিয়ে মুচকি হাঁসে।

কাক আর শকুনের দল
ঝিল হতে আনলো যে জল,
বর,বউ দুজনে আজ
সেই জলেই করলোগোসল।

বিয়ে পড়ায় হুতোম পেঁচা
সাথে ছিল চিল,
দেন মোহর ধার্য্য হলো
ফটিং এরই বিল।

স্বাক্ষী ছিল শ্যামা,তোতা
হলদে পাখি ছিল সাথে,
জোনাকপোকা ঘরসাজাল
অন্ধকার সে রাতে।

বিলের মাঝে শিমুল ডালে
শুরু সেই যুগলের বাস,
এমনি করেই কাটল সুখে
তাদের শত হাজার মাস।।

কবি:মো:মুকতার আলী,দুর্গাপুর-রাজশাহী।

জাহিদ/ঢাকানিউজ২৪ডটকম।