ইলিয়াস কাঞ্চনের জন্য রাস্তায় নামলেন শিল্পীরা

নিউজ ডেস্ক:    নতুন সড়ক পরিবহন আইন সংশোধনের দাবিতে সম্প্রতি উত্তাল হয়ে উঠেছিল দেশের পরিবহন সেক্টর। আর এই আইনকে সাধুবাদ জানিয়ে বিভিন্ন স্থানে প্রচার-প্রচারণায় অংশ নিয়েছিলেন নিরাপদ সড়ক চাই (নিসচা) সংগঠন প্রতিষ্ঠা ও অভিনেতা ইলিয়াস কাঞ্চন। ফলে ইলিয়াস কাঞ্চনকে পরিবহন শ্রমিকদের রোষানলে পড়তে হয়। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমগুলোতে ইলিয়াস কাঞ্চনের ছবি সম্বলিত কুরুচিপূর্ণ ব্যানার এবং কুশপুত্তলিকা তৈরি করে তাতে জুতার মালা পরানো হয়েছে।

ইলিয়াস কাঞ্চনের সঙ্গে এমন আচরণের কারণে ক্ষোভে ফেটে পড়েন সাধারণ মানুষরাও। যার প্রতিবাদ চলে ফেসবুকে। এবার এই নায়কের জন্য রাস্তায় নামলেন চলচ্চিত্রের শিল্পীরা।

সোমবার দুপুর সাড়ে ১২টার দিকে রাজধানীর তেজগাঁওয়ের বাংলাদেশ চলচ্চিত্র উন্নয়ন করপোরেশনের (বিএফডিসি) সামনের সড়কের মানববন্ধন করে চলচ্চিত্রসংশ্লিষ্ট ১৮টি সংগঠনের সদস্যরা। এ সময় বিভিন্ন প্ল্যাকার্ড ও ব্যানারে নিজেদের দাবি তুলে ধরেন তারা। চলচ্চিত্রের এই কর্মীরাও চান সড়ক পরিবহন আইন-২০১৮’র পূর্ণ বাস্তবায়ন হউক।

মানববন্ধনের মূল ব্যানারে লেখা ছিল, বাংলাদেশ চলচ্চিত্র শিল্পের সকল সংগঠনের পক্ষ থেকে চিত্রনায়ক, প্রযোজক ও পরিচালক ইলিয়াস কাঞ্চনের প্রতি অসম্মানজনক আচরণের তীব্র নিন্দা ও ঘৃণা জানাই। এবং জনস্বার্থে জাতীয় সড়ক নিরাপত্তা আইন ২০১৮ এর পূর্ণ বাস্তবায়ন চাই।

মানববন্ধের অংশ নেন, বাংলাদেশ চলচ্চিত্র প্রযোজক পরিবেশক সমিতি, চলচ্চিত্র পরিচালক সমিতি, শিল্পী সমিতি, নৃত্যশিল্পী সমিতি, চিত্রগ্রাহক সমিতি, ভাই ভাই সঞ্চয় গোষ্ঠী, সহকারী পরিচালক সমিতি, মেকআপম্যান সমিতি, লেখক সমিতিসহ চলচ্চিত্রসংশ্লিষ্ট ১৮টি সংগঠন।

এ সময় বাংলাদেশ চলচ্চিত্র শিল্পী সমিতির সাধারণ সম্পাদক জায়েদ খান বলেন, ‘চিত্রনায়ক, পরিচালক, প্রযোজক ইলিয়াস কাঞ্চনের সঙ্গে যে অসম্মানজনক আচরণ করা হয়েছে তার জন্য আমাদের এই প্রতিবাদী কর্মসূচি। পাশাপাশি জাতীয় সড়ক নিরাপত্তা আইন- ২০১৮-এর পূর্ণ বাস্তবায়ন করা দাবি জানাচ্ছি।’

মুশফিকুর রহমান গুলজার বলেন, ‘দেশের মানুষের নিরাপদ জীবনের জন্য ইলিয়াস কাঞ্চন দীর্ঘ ২৭ বছর ধরে একা একা লড়াই করে চলেছেন। এই মানুষটিকে অপমান, মেনে নেয়া যায় না। তার ছবিতে কুরুচিপূর্ণ কথা লেখা হচ্ছে। এটা অন্যায়। যারা করছেন তাদের প্রতি আমাদের ঘৃণা ও প্রতিবাদ। বাংলাদেশ চলচ্চিত্র শিল্পের সব সংগঠনের পক্ষ থেকে চিত্রনায়ক ইলিয়াস কাঞ্চনের প্রতি অসম্মানজনক আচরণের তীব্র নিন্দা ও ঘৃণা জানাই।’