বিভিন্ন জেলায় বাস চলাচল বন্ধে দুর্ভোগে মানুষ

নিউজ ডেস্ক:    নতুন সড়ক পরিবহন আইন কার্যকর করায় এর বিরোধিতা করে বিভিন্ন জেলায় বাস চলাচল বন্ধ করে দিয়েছেন পরিবহন শ্রমিকরা। এতে চরম দুর্ভোগে পড়েছে সাধারণ মানুষ। সোমবারের ন্যায় মঙ্গলবারও দক্ষিণ ও পশ্চিমাঞ্চলে বাস চলাচল করছে না। শ্রমিকরা জানান, সড়ক পরিবহন আইন বাতিলের দাবিতে তাদের এই ধর্মঘট। প্রতিনিধিদের পাঠানো তথ্য নিয়ে অনলাইন ডেস্ক রিপোর্ট।

খুলনা:  নতুন সড়ক আইন সংশোধন না করার প্রতিবাদে খুলনায় দ্বিতীয় দিনের মতো বাস চালকরা কর্মবিরতি পালন করছেন। যার কারণে খুলনা থেকে রাজধানীসহ অভ্যন্তরীণ ও দূরপাল্লার সকল রুটে বাস চলাচল বন্ধ রয়েছে।

পরিবহন ধর্মঘটের কারণে যাত্রীদের সীমাহীন দুর্ভোগ পোহাতে হচ্ছে। এদিকে, খুলনা থেকে বাস চলাচল বন্ধ থাকায় খুলনা রেল স্টেশনে যাত্রীদের তীব্র চাপ বেড়েছে। অনেক যাত্রী টিকিট না পেয়েও জোর করে ট্রেনে উঠছেন।

খোঁজ নিয়ে জানা যায়, মঙ্গলবার সকালে খুলনার সোনাডাঙ্গা বাস টার্মিনাল থেকে অভ্যন্তরীণ ও দূরপাল্লার কোনো যানবাহন ছেড়ে যায়নি। এ সুযোগে মাহিন্দ্র, মিনি পিকআপ, মাইক্রোবাসসহ ছোট গাড়িগুলোতে কয়েকগুণ বেশি ভাড়া দিয়ে ঝুঁকি নিয়ে যাত্রীদের গন্তব্যস্থলে পৌঁছাতে হচ্ছে।

আন্দোলনরত বাস চালকরা বলছেন, নতুন আইনে দুর্ঘটনার জন্য চালকদেরই দায় নিতে হচ্ছে। পাঁচ লাখ টাকা পর্যন্ত জরিমানা দিতে হবে। এ আইন মেনে নেওয়া যায় না। যার প্রতিবাদে চালকরা কর্মবিরতি পালন করছেন।

টাঙ্গাইল:  টাঙ্গাইলের ভূঞাপুরে পরিবহন শ্রমিকদের অনির্দিষ্টকালের ধর্মঘট চলছে। বাস না চলায় যাত্রী সাধারণ সিএনজিচালিত অটোরিকশা করে জেলা সদরসহ বিভিন্ন গন্তব্যে যাতায়াত করছেন।

ভূঞাপুর বাসস্ট্যান্ডে গাড়ির জন্য অপেক্ষারত মনজিলা নামের এক যাত্রী বলেন, সকাল ১০টার দিকে বাসস্ট্যান্ড এসে দেখি গাড়ি বন্ধ। পরিবার নিয়ে ঢাকা যাবো কিন্তু কোন গাড়ি বাসস্ট্যান্ড থেকে ছেড়ে যাচ্ছে না।

উপজেলা শ্রমিক ইউনিয়নের সাধারণ সম্পাদক খন্দকার সুরুজ আলম জানান, শ্রমিকরা তাদের নিরাপত্তা ও জেল-জরিমানার ভয়ে গাড়ি চালানো থেকে বিরত রয়েছেন। সংগঠন থেকে এধরনের কোন কর্মসূচি নেওয়া হয়নি।

সাতক্ষীরা:  সাতক্ষীরার কেন্দ্রীয় বাস টার্মিনাল থেকে মঙ্গলবার সকাল থেকে কোন বাস ছেড়ে যায়নি। বন্ধ রয়েছে অভ্যন্তরীণ রুটের সকল বাস চলাচলও। যাত্রীবাহী বাস বন্ধ থাকলেও দুই একটি বিআরটিসি বাস চলাচল করতে দেখা গেছে।

এদিকে, বাস চলাচল বন্ধ থাকায় বিপাকে পড়েছেন দূর-দূরান্তের যাত্রীরা। ইজিবাইক, মাহেন্দ্র, ইঞ্জিন ভ্যানসহ বিভিন্ন যানবাহনে তারা যাতায়াত করছেন। সাতক্ষীরা বাস শ্রমিক ইউনিয়নের সাধারণ সম্পাদক জাহিদুর রহমান জানান, নতুন আইন সংশোধন না হওয়া পর্যন্ত কোন শ্রমিক বাস চালাতে চায় না।

এর আগে সোমবার খুলনা, রাজশাহী, শেরপুর, ঝালকাঠি ও পাবনায় বাস চলাচল করেনি। ফলে এসব জেলার মানুষরা চরম বিপাকে পড়েছে।