১৮ নভেম্বর স্পেন আ. লীগের ত্রি-বার্ষিক সম্মেলন : উদ্বিগ্ন নেতাকর্মীরা

স্পেন প্রতিনিধি:  আগামী ১৮ নভেম্বর স্পেন আওয়ামী লীগের ত্রি-বার্ষিক সম্মেলনের দিন ধার্য করা হয়েছে। অনুষ্ঠিতব্য এই সম্মেলনকে ঘিরে ইতোমধ্যে শুরু হয়েছে নানা জল্পনা-কল্পনা। দলে অনুপ্রবেশকারী, দলীয় শৃঙ্খলা বিরোধী ও যাদের দলের দূর্দিনে কখনও দেখা যাইনি তারাই এই সম্মেলনের সাথে যুক্ত। ফলে আলোচনা-সমালোচনা শুরু হয়েছে স্পেন আওয়ামী লীগের কমিটি গঠনের প্রক্রিয়া নিয়ে। কানাঘুষা চলছে- পকেট কমিটি ঘোষণা হবে, না- কাউন্সিলের মাধ্যমে নির্বাচিত হবে আগামীর নেতৃত্ব, তা নিয়ে।

গত ১১ নভেম্বর রাতে স্পেনের রাজধানী মাদ্রিদের মেহমান খানা রেস্টুরেন্টে স্পেন আওয়ামী লীগের সম্মেলন প্রস্তুতি কমিটির জন্য গঠিত আহ্বায়ক কমিটির ১৭ জন সদস্য ও তৃণমূল আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীদের উদ্যোগে ‘আমরা আশাবাদী স্পেন আওয়ামী লীগের সম্মেলন হবে গণতান্ত্রিক প্রক্রিয়ায়’-এ স্লোগানকে সামনে রেখে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়।

স্পেন আওয়ামী লীগের সিনিয়র যুগ্ম আহ্বায়ক মো. দুলাল সাফার সভাপতিত্বে ও যুগ্ম আহ্বায়ক শেখ আব্দুর রহমানের সঞ্চালনায় আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে বক্তব্য দেন আহ্বায়ক কমিটির সদস্য ও সিনিয়র আওয়ামী লীগ নেতা মো. জাকির হোসেন, স্পেন আওয়ামী লীগের সিনিয়র যুগ্ম আহ্বায়ক আব্দুল কাদের ঢালী, আয়ূব আলী সোহাগ, আহ্বায়ক কমিটির সদস্য সায়েম সরকার, তামিম চৌধুরী, মুক্তিযোদ্ধা আব্দুর রহমান, প্রবীণ আওয়ামী লীগ নেতা জসিম উদ্দিন মাস্টার, রফিক খান, রাসেল দেওয়ান, ইফতেখার আলম, আব্দুর রহমান, নূর মোহাম্মদ রিপন, আব্দুল কায়ূম, মাহবুবুর রহমান বকুল, যুব নেতা ওলিউর রহমান, মো. হাসান, জালাল হোসাইন, ওয়াহিদুজ্জামান, নজরুল ইসলাম প্রমুখ।

বক্তারা বলেন, আগামী ১৮ নভেম্বর আওয়ামী লীগের ত্রি-বার্ষিক সম্মেলন যাতে দলের ত্যাগী ও সম্মেলনের সাথে যুক্ত নেতা-কর্মীদের নিয়ে হয় তারা সে ব্যাপারে সবার দৃষ্টি আকর্ষণ করেন। তারা বলেন, দলে অনুপ্রবেশকারী, দলীয় শৃঙ্খলা বিরোধী ও যাদের দলের দুর্দিনে কখনও দেখা যায়নি তারাই এ সম্মেলনের সঙ্গে যুক্ত। এ নিয়ে তারা উদ্বেগ প্রকাশ করেন।

তারা বলেন, সুবিধাবাধীদের কারণে স্পেন আওয়ামী লীগ আজ সর্ব মহলে সমালোচিত। স্পেন আওয়ামী লীগের নতুন কমিটি পকেট কমিটি ঘোষণা হবে নাকি কাউন্সিলের মাধ্যমে নির্বাচিত হবে তা নিয়ে সবার মাঝে একটি সংশয় ও সন্দেহ বিরাজ করছে।

বক্তারা আশা ব্যক্ত করে বলেন,‘আমরা আশাবাদী স্পেন আওয়ামী লীগের সম্মেলন হবে গণতান্ত্রিক প্রক্রিয়ায়’-এ স্লোগানকে সামনে রেখে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে নেতা-কর্মীরা এসব তথ্য তুলে ধরেন।

উল্লেখ্য :গত ১০ জুলাই ঘোষিত স্পেন আওয়ামী লীগের সম্মেলন প্রস্তুতির জন্য ২৬ সদস্য বিশিষ্ট আহবায়ক কমিটি গঠন করা হয়। এই কমিটি ৯০ দিনের মধ্যে একটি সম্মেলনের মাধ্যমে পূর্ণাঙ্গ কমিটি গঠনের দায়িত্ব পান। কিন্তু এই ৯০ দিনের মধ্যে পূর্ণাঙ্গ কমিটি গঠনে ব্যার্থ হন উল্টো তাদের কর্মকান্ডে তৃণমূলে ক্ষোভের সঞ্চার হয়েছে। সম্মেলন আয়োজনে প্রস্তুতি কমিটি বিভিন্ন সময় মতবিনিময় সভার আয়োজন করলেও কারা হবে কাউন্সিলর তা ঘোষণা না করে আগামী ১৮ নভেম্বর সম্মেলনের তারিখ নির্ধারন করায় আহবায়ক কমিটির অধিকাংশ সদস্য ও তৃণমূলের নেতাকর্মীদের মাঝে এই ক্ষোভ সৃষ্টি হয়েছে বলে জানা গেছে।

সূত্র মতে, স্পেন আওয়ামীলীগের সাবেক কার্যকরী কমিটির ৭১ জন এবং বার্সেলোনা কমিটির ৫১ জন করে নির্ধারিত কাউন্সিলর স্পেন আওয়ামী লীগের সম্মেলনে অংশ নেবেন এবং স্পেন আওয়ামী লীগের কমিটি গঠনে ভোট প্রদানের সুযোগ পাবেন। এই ১২২ জন অথবা স্পেনে নতুন আগত বিভিন্ন দেশ এবং বাংলাদেশ থেকে আগত অনেক নেতাকর্মী যারা অতীতে আওয়ামী লীগের পদে ছিলেন- কিন্তু এখন নেই, যারা আওয়ামী লীগ পরিবারের। কিন্তু স্পেন আওয়ামী লীগের সম্মেলন প্রস্তুতি কমিটির নেতারা সেসব কথা না বলে আহুত সভাগুলোতে কাউন্সিলর হতে আগ্রহীদের আবেদন কিংবা সদস্য না করায় তৃণমূল আওয়ামী লীগের নেতা-কর্মীরা চরমভাবে ক্ষিপ্ত হয়েছেন।

সংবাদ সম্মেলনে তৃণমূল নেতৃবৃন্দ আহবায়ক কমিটিকে সাংগঠনিক শৃঙ্খলা মেনে সকল সকল আওয়ামীলীগ নেতৃবৃন্দের সমন্বয়ে পূর্ণাঙ্গ কমিটি করতে সম্মেলন আয়োজনের বিষয়ে বাংলাদেশ আওয়ামীলীগ কেন্দ্রীয় কমিটি ও সর্ব ইউরোপ কমিটির হস্তক্ষেপ সহ স্থানীয় আওয়ামীলীগ নেতৃবৃন্দের সহযোগিতা কামনা করা হয়।

জাহিদ/ঢাকানিউজ২৪ডটকম।