জঙ্গি-সন্ত্রাস, ইভটিজিং ও মাদকমুক্ত দেশ গঠনে অক্লান্ত পরিশ্রম করছেন প্রধানমন্ত্রী: স্বরাস্ট্রমন্ত্রী

নিজস্ব প্রতিবেদক, ময়মনসিংহ: আগামী প্রজন্মের জন্য সন্ত্রাস, জঙ্গি, ইটিজিং ও মাদকমুক্ত নিরাপদ বাংলাদেশ বিনির্মাণে জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের সুযোগ্য কণ্যা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা অক্লান্ত পরিশ্রম করছেন। ২০০৮ সালে সন্ত্রাস ও মাদকের বিরুদ্ধে জিরো টলারেন্স নীতি ঘোষণা করেছেন তিনি। বাংলাদেশ পুলিশসহ অন্যান্য আইনশৃংখলা বাহিনী প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশনা বাস্তবায়নসহ যে কোনো চ্যালেঞ্জ মোকাবেলা করতে সক্ষম বলে মন্তব্য করেছেন স্বরাস্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান এমপি। তিনি বলেন ডিজিটাল বাংলাদেশের সুফল এখন মানুষ ঘরে বসেই পাচ্ছে। এখন থেকে মানুষ লস্ট এন্ড ফাউন্ড বিষয়ে থানায় (ময়মনসিংহ জেলার কোতুয়ালী মডেল ও ভালুকা মডেল থানায়) ডায়রি ও পুলিশ ক্লিয়ারেন্স ঘরে বসেই অনলাইনে করতে পারছেন, ভবিষ্যতে অন্যান্য বিষয়েও পুলিশী সেবা অন্তর্ভূক্ত করা হবে। জননিরাপত্তা নিশ্চিত করতে সকলের সহযোগিতা কামনা করেছেন স্বরাস্ট্রমন্ত্রী।

‘মুজিব বর্ষে যুক্তির পথে সত্যকে জানবো, অন্ধকার ঠেলে সমৃদ্ধ ময়মনসিংহ গড়বো’ এই শ্লোগান নিয়ে ময়মনসিংহ পুলিশ লাইন্স মাঠে বৃহস্পতিবার দুপুরে মাদক, বাল্যবিবাহ, ইভটিজিং, সন্ত্রাস, ও জঙ্গিবাদ বিরোধী এবং নিরাপদ সড়ক আন্দোলন বিষয়ে অন্তঃজেলা পুলিশ সুপার বির্তক প্রতিযোগিতার উদ্বোধন ও কমিউনিটি পুলিশিং মহাসামবেশে প্রধান অতিথির হিসেবে বক্তব্য দানকালে স্বরাস্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান এমপি এসব কথা বলেন।ময়মনসিংহ জেলা পুলিশের আয়োজনে অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন পুলিশ সুপার শাহ আবিদ হোসেন। অনুষ্ঠানে এক প্রীতি বিতর্ক প্রতিয়োগীতা অনুষ্ঠিত হয়।

এরআগে তিনি ১৯২১ থেকে ১৯৭১ কোথায় নেই জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান, বঙ্গবন্ধুর বিশাল ছবিতে স্বর্ণাক্ষরে লেখা বিভিন্ন ভাষনের গুরুত্বপূর্ণ অংশ, ৩০ ফুট উচুঁ ‘চেতনায় আয়তনে’ যেখানে ৬দফা ৯ মাসের যুদ্ধ, পালতোলা বড় নৌকা, ডিঙ্গি নৌকা, ফোয়ারা ইথ্যাদির উদ্বোধন করেন স্বরাস্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান এমপি । দেশবরেন্য লেখক ও শিক্ষাবিদ ড. মুহাম্মদ জাফর ইকবাল, যাদুশিল্পী জুয়েল আইচসহ অন্যান্য অতিথিবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।

আরো বক্তব্য রাখেন বিশেষ অতিথি থাকবেন সমাজকল্যাণ প্রতিমন্ত্রী শরীফ আহমেদ এমপি, সংসদ সদস্য মনিরা সুলতানা মনি, বাংলাদেশ কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ড. লুৎফুল হাসান, ও জাতীয় কবি কাজী নজরুল ইসলাম বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ড. এ এইচ এম মোস্তাফিজুর রহমান, ময়মনসিংহ সিটির মেয়র ইকরামুল হক টিটু, বিভাগীয় কমিশনার খোন্দকার মোস্তাফিজুর রহমান এনডিসি ও ডিআইজি নিবাস চন্দ্র মাঝি, জেলা প্রশাসক মোঃ মিজানুর রহমান, জেলা আওয়ামীলীগ সভাপতি অ্যাডভেঅকেট জহিরুল হক খোকা, জেলা নাগরিক আন্দোরে সভাপতি অ্যাডভোকেট আনিসুর রহমান খান, আনন্দমোন কলেজেনর অধ্যক্ষ অধ্যাপক নরায়ন চন্দ্র ভৌমিক ও জেলা কমিুনিটি পুলিশিং সভাপতি অ্যধাপক আমির আহমেদ চৌধুরী রতন প্রমূখ। সকল প্রস্তুতি সম্পন্ন হয়েছে।

জাহিদ/ঢাকানিউজ২৪ডটকম।