বাবরি মসজিদের স্থানে রামমন্দির হবে: সুপ্রিম কোর্ট

নিউজ ডেস্ক: ভারতের বাবরি মসজিদকে কেন্দ্র করে ঐতিহাসিক রায় দিল দেশটির সর্বোচ্চ আদালত। রায়ে বাবরি মসজিদের স্থানে রামমন্দির নির্মাণ হবে। এমনটাই জানিয়েছে সুপ্রিম কোর্ট। মুসলিমদের অয্যোধ্যার অন্য কোনো স্থানে মসজিদ নির্মাণের নির্দেশ দেয়া হয়েছে। এজন্য সুন্নি ওয়াকফ বোর্ডকে ৫ একর জায়গা বরাদ্দ দেবার জন্য সরকারকে নির্দেশ দিয়েছে আদালত।

প্রধান বিচারপতি রঞ্জন গগৈ-এর নেতৃত্বে সুপ্রিম কোর্টের পাঁচ বিচারপতির সাংবিধানিক বেঞ্চ শনিবার এই রায় দিয়েছে। সর্বসম্মতিক্রমে এই রায় বলে আদালত সূত্রে খবর। প্রধান বিচারপতি ছাড়াও বেঞ্চে রয়েছেন বিচারপতি এসএ বোবদে, ডিওয়াই চন্দ্রচূড়, অশোক ভূষণ এবং এস আব্দুল নাজির। রায় পড়ে শোনান প্রধান বিচারপতি রঞ্জন গগৈ।

মন্দির নির্মাণের বিষয়ে সরকারের ট্রাস্ট গঠন করতে বলা হয়েছে। আর বিতর্কিত ২.২ একর জমি রামলালাকে দেবার নির্দেশ দেয়া হয়েছে। রাম লালাকে সরকারের সঙ্গে মিলে এই মন্দির নির্মাণ করার পরামর্শ দেয়া হয়েছে। বাবরি মসজিদের জায়গা মুসলিমদের ছিল না। এটা নিশ্চিত হতে আদালত বৈজ্ঞানিক গবেষণার ফল আমলে নিয়েছে। এতে আর্কেওলজিক্যাল সোসাইটি অব ইন্ডিয়ার ফাইনডিংসকে ভিত্তি হিসেবে ধরেছে আদালত। বাবরি মসজিদ বানানো হয়েছিল মন্দিরের পরিকাঠামোর ওপর। এটা মসজিদের নিচে মন্দিরের বিভিন্ন কাঠামো প্রাপ্তিতে নিশ্চিত হয় আদালত। তবে মন্দির ভেঙ্গে মসজিদ তৈরি হয়েছে। এ বিষয়টি নিশ্চিত হতে পারেনি আদালত। তবে সেখানে মন্দিরের বিভিন্ন পরিকাঠামো ছিল এটা নিশ্চিত হওয়া গেছে। এজন্য আদালত বাবরি মসজিদের স্থানে মন্দির নির্মাণের নির্দেশনা দিয়েছেন।

সুন্নি ওয়াকফ বোর্ডের আইনজীবী জাফরায়েব জিলানি বলেন, ‘‘আমরা সুপ্রিম কোর্টের রায়কে সম্মান জানাই। তবে এই রায়ে আমরা সন্তুষ্ট নই। পরবর্তী পদক্ষেপ নিয়ে আমরা চিন্তাভাবনা করব।’’ অন্য দিকে হিন্দু মহাসভার আইনজীবী বরুণ কুমার সিংহ বলেছেন, ‘‘এটা ঐতিহাসিক রায়। এই রায়ের মধ্যে দিয়ে সুপ্রিম কোর্ট বৈচিত্র্যের মধ্যে ঐক্যের বার্তা দিয়েছে।’’

প্রসঙ্গত এর আগে এলাহাবাদ হাইকোর্ট বাবরি মসজিদের জায়গা তিন ভাগ করার রায় দিয়েছিল। পরে এই রায় স্থগিত করে সুপ্রিম কোর্ট। বিতর্কিত জমিকে তিন ভাগে ভাগ করার সিদ্ধান্ত ভুল ছিল এমনটাই জানিয়েছে  সুপ্রিম কোর্ট।

সূত্র: আনন্দবাজার, এইসময়, কলকাতা২৪, এভিপি আনন্দ, এনডিটিভি।