‘মা’

‘মা’
মো:মুকতার আলী।

‘মা’ গো তুমি কি ধন ছিলে 
বুঝিনি তা আগে!
আজকে তোমার মুখটি মাগো
খুব দেখতে ইচ্ছে জাগে!

‘মা’ গো তোমার ছোট্ট ছেলে
তোমায় খুঁজে ফেরে,
তুমি তো নও এমন পাষাণ,
যাবে আমায় ছেড়ে।

তুমি আমায় ঘুম পাড়াতে
শুনিয়ে কত গান
আজকে চোখে ঘুম আসেনা
জুড়ায় না শুনে প্রাণ।

তোমার মত কেউ বলেনা
খোকা ভালো থাকিস
যেথায় থাকিস নিজের প্রতি
খেয়াল কিন্তুু রাখিস!

সময় মত নাওয়া খাওয়া
করতে না হয় যেন ভুল
তুই যে আমার পরাণ পাখি,
কলিজার বুলবুল। 

মা’গো তোমার মিষ্টি শাষন
সোহাগ মাখা পরশ,
আমি যেন দুনিয়াতেই
পেয়েছিলাম খোদার আরশ।

ভাবিনি মা হারিয়ে যাবে
আমায় করে একা,
বুঝিনি মা আর হবেনা
তোমার সাথে দেখা।

বলতে তুমি’খোকা ওরে
আমায় মনে রাখিস
আমার কথা মনে পড়লে
মা’ মা’ বলে ডাকিস।

ভাবিনি মা সত্যি তুমি
আমায় দিয়ে ফাঁকি
সারা জনম এতিম রবো
কাঁদবে শুধু আঁখি।

মা’ গো তোমার তরে প্রভু যেন
বেহেস্ত নসিব করে
জান্নাতের হাওয়া যেন
লাগে তোমার কবরে।

তুমি আমায় দোয়া করো
যতদিন বেঁচে থাকি,
ততদিনই যেন তোমায় মাগো
মনের সিংহাসনে রাখি।।

কবি:মো: মুকতার আলী, দুর্গাপুর-রাজশাহী।

ঢাকানিউজ২৪ডটকম/জাহিদ।