হংকংয়ে গণতন্ত্রকামীদের পাশে থাকবে যুক্তরাষ্ট্র

নিউজ ডেস্ক:    যুক্তরাষ্ট্রের ভাইস প্রেসিডেন্ট মাইক পেন্স হংকংয়ের বিক্ষোভকারীদের পাশে থাকার অঙ্গীকার করেছেন। তিনি চীনের বিরুদ্ধে হংকংয়ে স্বাধীনতা ও অধিকার হরণের অভিযোগ করেছেন। তিনি মুসলিম উইঘুরদের ওপর নির্যাতনের জন্য চীনের কঠোর সমালোচনা করেন। মাইক পেন্স নিজের দেশের মান-মর্যাদা বিক্রি করে অন্য দেশের বাজারে প্রবেশাধিকার রক্ষা করার জন্য মার্কিন কোম্পানিগুলোর নিন্দা জানিয়েছেন। খবর রয়টার্সের।

বৃহস্পতিবার ওয়াশিংটনে থিংক ট্যাংক উইলসন সেন্টারে এক অনুষ্ঠানে ভাইস প্রেসিডেন্ট পেন্স বলেন, প্রধান অর্থনৈতিক প্রতিদ্বন্দ্বীর সঙ্গে যুক্তরাষ্ট্র সংঘাতে জড়াতে চায় না। চীনের উসকানিমূলক সামরিক পদক্ষেপ এবং ‘নজরদারি রাষ্ট্র’ গঠনের সমালোচনা করে মাইক পেন্স বলেন, চীন কীভাবে স্বাধীনতাকে হরণ করে তার বড়ো প্রমাণ হংকং।

গত কয়েক বছর ধরে বেইজিং হংকংয়ে হস্তক্ষেপ বাড়িয়েছে এবং মানুষের স্বাধীনতাকে ক্ষুণ্ন করে চলছে। তিনি হংকংবাসীর উদ্দেশে বলেন, ‘আমরা আপনাদের পাশে আছি। আপনারা রাস্তায় থাকুন এবং অহিংস প্রতিবাদ করুন।’

যুক্তরাষ্ট্রের দুই কোম্পানি ক্রীড়া পোশাক তৈরির কোম্পানি নাইক এবং ন্যাশনাল বাস্কেটবল অ্যাসোসিয়েশনের কথা উল্লেখ করে বলেন, নাইক নিজেদেরকে সামাজিক বিচারের চ্যাম্পিয়ন বলে। কিন্তু হংকংয়ের ক্ষেত্রে তারা তাদের সামাজিক বিবেককে প্রাধান্য দিতে পছন্দ করে না।