খালেদা জিয়াকে চিকিৎসার জন্য স্বজনরা বিদেশে পাঠাতে চান

নিউজ ডেস্ক: বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়াকে উন্নত চিকিৎসার জন্য বিদেশে পাঠাতে চান তার পরিবারের সদস্যরা। তারা বলেছেন, খালেদা জিয়ার শরীর খুবই খারাপ। তিনি উঠতে পারেন না, বসতে পারেন না, নিজের হাতে তুলেও খেতে পারেন না। এ অবস্থায় তার উন্নত চিকিৎসা দরকার। যেটা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয় (বিএসএমএমইউ) হাসপাতালে হচ্ছে না।

শুক্রবার বিকালে বিএসএমএমইউ’তে চিকিৎসাধীন অসুস্থ খালেদা জিয়ার সঙ্গে সাক্ষাত শেষে তার বোন সেলিমা ইসলাম সাংবাদিকদের কাছে তাদের এই অভিপ্রায় ব্যক্ত করেন।

বিকাল সাড়ে তিনটায় পরিবারের ৬ সদস্য খালেদা জিয়ার সঙ্গে দেখা করতে যান। এসময়ে সেলিমা ইসলাম ছাড়াও ছোট ভাই শামীম এস্কান্দারের স্ত্রী কানিজ ফাতেমা ও তার ছেলে অভিক এস্কান্দার এবং তারেক রহমানের স্ত্রী জোবাইদা রহমানের বড় বোন শাহিনা জামান খান বিন্দু, প্রয়াত সাঈদ এস্কান্দারের ছেলে অতনু এস্কান্দর ও তার ছেলে উজায়ের এস্কান্দার উপস্থিত ছিলেন।

পরিবারের স্বজনদের এমন বক্তব্যের পর খালেদা জিয়ার চিকিৎসার জন্য বিদেশে যাওয়ার ইস্যুটি আবারো সামনে এসেছে। এর আগে গত ১ অক্টোবর খালেদা জিয়ার সঙ্গে দেখা করে বিএনপির যুগ্ম মহাসচিব হারুনুর রশীদ এমপি বলেছিলেন, জামিন পেলে উন্নত চিকিৎসার জন্য বিদেশে যাবেন খালেদা জিয়া। চিকিৎসার সুযোগ পেলেতো অবশ্যই বিদেশ যাবেন। পরের দিন জিএম সিরাজ এমপির নেতৃত্বে চারজন এমপি খালেদার সঙ্গে দেখা করে বেরিয়ে বলেন, রাজনৈতিক সিদ্ধান্ত ছাড়া বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার মুক্তি হবে না। তার মুক্তির বিষয়ে প্রধানমন্ত্রীর পদক্ষেপ কামনা করেন।

তবে সরকারের ‘অনমনীয়’ মনোভাবের পর বিএনপির অবস্থান স্পষ্ট করে দলের মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেছেন, খালেদা জিয়া কারো অনুকম্পায় মুক্তি চান না। আইনি লড়াইয়ের মধ্য দিয়ে খালেদা জিয়া জামিন না পেলে আন্দোলনের মধ্য দিয়ে তাকে মুক্ত করা হবে। একইভাবে দলের অন্যান্য সিনিয়র নেতৃবৃন্দও ইউটার্ন নিয়ে আন্দোলনের মাধ্যমে খালেদা জিয়ার মুক্তি আদায় করা হবে বলে জানান।

খালেদা জিয়ার সঙ্গে প্রায় সোয়া এক ঘণ্টার সাক্ষাৎ শেষে সেলিমা ইসলাম বলেন, খালেদা জিয়ার শরীর খুবই খারাপ। পা বেঁকে গেছে। চলতে পারছে না, শুয়ে থাকতেও তার কষ্ট হচ্ছে। তাই তার উন্নত চিকিৎসার জন্য তাকে বিদেশে পাঠানো দরকার।

খালেদা জিয়া বিদেশে যেতে চান কিনা প্রশ্ন করা হলে সেলিমা ইসলাম বলেন বলেন, খালেদা জিয়া বলে নাই। তারাই বিদেশে পাঠাতে চাচ্ছেন। কারণ এখানে (বিএসএমএমইউ) যে চিকিৎসা দিচ্ছে এতে কিছুই হচ্ছে না। বরং দিনের পর দিন খারাপ হচ্ছে।

শুক্রবার চিকিৎসকরা এসেছিলেন কিনা জানতে চাইলে তিনি বলেন, চিকিৎসকরা দুই সপ্তাহ ধরে আসছে না। এরা আসেই না। কোনো চিকিৎসাও দেওয়া হচ্ছে না। তাহলে অযথা এখানে ফেলে রাখছে কেনো? তাই উন্নত চিকিসার জন্য বিদেশে নিয়ে যেতে চাই।

জামিন না প্যারোলে কোন ক্ষেত্রে যেতে চান- প্রশ্ন করা হলে সেলিমা রহমান বলেন, সরকার যদি জামিন দেয় তাহলে খালেদা জিয়া যেতে পারবেন।

ঢাকানিউজ২৪ডটকম/জাহিদ।