ক্রিকেটারদের পারিশ্রমিক কমছে

নিউজ ডেস্ক:   বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগের (বিপিএল) সপ্তম আসরের সার্বিক ব্যয় নির্বাহ করবে বিসিবি। টুর্নামেন্টের বিশেষ আসর বঙ্গবন্ধু-বিপিএলে টিম স্পন্সর নিলেও ক্রিকেটারদের পারিশ্রমিক পরিশোধ করবে বিসিবিই। তবে আগের আসরগুলোর তুলনায় ক্রিকেটারদের পারিশ্রমিক এবার কমছে।

বৃহস্পতিবার মিরপুর স্টেডিয়ামে মিটিং শেষে সংবাদ সম্মেলনে বিসিবি সভাপতি নাজমুল হাসান পাপন জানিয়েছেন, আগের মতো না হলেও ক্রিকেটারদের পারিশ্রমিক খুব খারাপ হবে না। বিপিএলে কোচ হতে আগ্রহ দেখিয়েছেন ৩৮ জন বিদেশি কোচ।

ক্রিকেটারদের পারিশ্রমিক নিয়ে বিসিবি সভাপতি বলেছেন, ‘একটা তৈরি করা হয়েছে, আগের মতো হবে না এটা। যেহেতু বিসিবি নিজেরা করছে এটা তাই আগের মতো অত বেশি হবে না, তবে খারাপ হবে না। এখন পর্যন্ত আমরা যেটি দেখেছি যে খুব একটা হেরফের নেই। তবে একদম আগের মতো না, একটু কম আছে।’

বিদেশি ৩৮ জন কোচ ও ৩৯৩ জন ক্রিকেটার বঙ্গবন্ধু বিপিএলে খেলতে আগ্রহ প্রকাশ করেছেন। নাজমুল হাসান পাপন বলেছেন, ‘৩৯৩ জন খেলোয়াড় রেজিস্টার করেছে এবং আমরা যেসব খেলোয়াড় সাধারণত আমাদের বিপিএলে দেখে থাকি তারা প্রায় সবাই নিবন্ধন করেছে। এটা ভালো একটি খবর আমাদের জন্য যে, খেলোয়াড় আগের মতোই থাকছে। এছাড়া ৩৮ জন বিদেশি কোচ আবেদন করেছেন। আমাদের এখানে বিপিএলে তারা কোচ হিসেবে থাকতে চাইছেন। এগুলো কথা এসেছে। আর স্পন্সর তো দেখলাম প্রায় ৯টির মতো এসেছে এখন পর্যন্ত। তারা আগ্রহ দেখিয়েছে যে স্পন্সর করতে চায়।’

পূর্বনির্ধারিত সময়ে ৬ ডিসেম্বরই বিপিএল শুরু করতে চায় বিসিবি। যদিও গত সপ্তাহে বিসিবি পরিচালক মাহবুব আনাম বলেছেন, ১০ দিন অন্তত পেছাতে পারে টুর্নামেন্ট। গতকাল বিসিবি সভাপতি বলেছেন, উদ্বোধনী অনুষ্ঠানের কারণে কয়েক দিন পেছানোর সম্ভাবনা আছে। নাজমুল হাসান পাপন বলেছেন, ‘এবার যেহেতু আমরা উদ্বোধনী অনুষ্ঠান করতে যাচ্ছি সেই কারণে এক-দুই দিন এদিক সেদিক হতে পারে, তবে এটা এখনো নিশ্চিত না। আমরা চেষ্টা করব একই সময় করতে, বড়োজোর দুই এক দিন দেরিও হতে পারে। সেটা আমরা এখনই বলছি না। আমরা মোটামুটি প্রস্তুতি নিচ্ছি ৬ তারিখ শুরু করার জন্য।’

আগামী মাসেই বিপিএলের প্লেয়ার্স ড্রাফট অনুষ্ঠিত হবে। বিসিবি সভাপতি বলেছেন, ‘ড্রাফটের তারিখ আমরা আপাতত ঠিক করেছি নভেম্বরের ১২ তারিখের দিকে। ভারতে টি-টোয়েন্টি খেলা আছে। সেটা শেষ করে ১২ তারিখ নাগাদ আমরা একটি সময় ঠিক করেছি যে তখন প্লেয়ার ড্রাফট হবে।’

বিপিএলে এবার প্রতি দলে একজন করে লেগ স্পিনার খেলানো বাধ্যতামূলক করেছে বিসিবি। সঙ্গে ১৪০ কিমি. গতিতে বল করা বিদেশি ফাস্ট বোলার রাখতে হবে দলগুলোকে। আগামী বিশ্বকাপের চিন্তাতেই বিসিবি এসব নিয়ম প্রবর্তন করতে যাচ্ছে বলে জানিয়েছেন বিসিবি সভাপতি।