ভারতের সঙ্গে চুক্তি সার্বভৌমত্ব বিক্রির শামিল: মওদুদ

নিউজ ডেস্ক:    ভারতের সঙ্গে বাংলাদেশের চুক্তিকে সার্বভৌমত্ব বিক্রি করার শামিল বলে মন্তব্য করেছেন বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য ব্যারিস্টার মওদুদ আহমদ।

শুক্রবার জাতীয় প্রেস ক্লাবের সামনে বাংলাদেশ সম্মিলিত পেশাজীবী পরিষদ আয়োজিত বিক্ষোভ সমাবেশে ব্যারিস্টার মওদুদ আহমদ এ কথা বলেন। দেশজুড়ে ‘নৃশংস-বর্বর-হত্যা ও নির্যাতনের প্রতিবাদ’ শীর্ষক এ সমাবেশের আয়োজন করা হয়।

ব্যারিস্টার মওদুদ বলেন, ভারতকে চট্টগ্রাম ও মোংলা বন্দরের ব্যবহার এবং সমুদ্রের উপকূলে রাডার সিস্টেম স্থাপনের অনুমতি দিয়ে দেশের স্বাধীনতা ও সার্বভৌমত্বকে হুমকির মধ্যে ফেলা হয়েছে।

ভারতের সঙ্গে চুক্তি প্রসঙ্গে মওদুদ বলেন, গত ১০ বছর এই সরকার ক্ষমতায়; তিস্তার ন্যায্য হিস্যা তারা আদায় করতে পারেনি। কিন্তু ফেনী নদীর পানি দিয়ে আসা হলো। সংবাদ সম্মেলনে দেওয়া প্রধানমন্ত্রীর বক্তব্য প্রসঙ্গে মওদুদ বলেন, কী করে প্রধানমন্ত্রী বলতে পারেন, দেশের জাতীয় স্বার্থ বিক্রি করে দেননি। আজকে সারাদেশের মানুষ জানে, ফেনী নদী থেকে প্রতি সেকেন্ডে ৫০ লিটার পানি যাবে। আর প্রতি ২৪ ঘণ্টায় যাবে চার লাখ লিটার! অথচ বাংলাদেশের পানি খুবই প্রয়োজন। কারণ, শুস্ক মৌসুমে পানি থাকে না। কিন্তু তিনি সেই পানি দিয়ে এলেন।

আবরার হত্যাকাণ্ড নিয়ে মওদুদ আহমদ বলেন, সমালোচনামূলক বক্তব্য এবং বাকস্বাধীনতা প্রয়োগ করার জন্য আবরারের মৃত্যু হয়েছে। এ জন্য এই দিনটিকে শহীদ আবরার দিবস হিসেবে পালন করা হোক।

বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার মুক্তির প্রসঙ্গে তিনি বলেন, খালেদা জিয়া ও গণতন্ত্রের মুক্তি এবং আবরার হত্যাসহ গত ১০ বছরে যাদের মৃত্যু হয়েছে, সেই বিচার পাওয়ার একমাত্র পথ হচ্ছে রাজপথ। আন্দোলনের মাধ্যমে এই সরকারকে হটিয়ে একটি গণতান্ত্রিক ও নির্বাচিত সরকার গঠন করতে হবে। এ জন্য দেশের সব রাজনৈতিক দল, দেশপ্রেমিক ও গণতান্ত্রিক এবং জাতীয়তাবাদী দলকে ঐক্যবদ্ধ হয়ে আন্দোলন সফল করতে হবে।

বাংলাদেশ ফেডারেল সাংবাদিক ইউনিয়ন (বিএফইউজে) একাংশের সভাপতি রুহুল আমিন গাজীর সভাপতিত্বে ও বিএসপিপির সদস্য সচিব ডা. এ জেড এম জাহিদ হোসেনের সঞ্চালনায় সমাবেশে আরও বক্তব্য দেন গণস্বাস্থ্য কেন্দ্রের প্রতিষ্ঠাতা ডা. জাফরুল্লাহ চৌধুরী, বিএফইউজে মহাসচিব এম আবদুল্লাহ, ঢাকা সাংবাদিক ইউনিয়ন (ডিইউজে) একাংশ সভাপতি কাদের গনি চৌধুরী প্রমুখ।