দুর্গাপূজার প্যান্ডেলগুলোতে লোকজনের ঢল

দুর্গা পূজা কলাবাগান মাঠ

সুমন দত্ত: বাংলাদেশে দুর্গাপূজা সার্বজনীনতা পেয়ে গেছে। সেটা বিভিন্ন পূজা মণ্ডপে গেলে যে কেউ বুঝতে পারবেন। রবিবার বিভিন্ন মণ্ডপগুলোতে ঘুরে এই তথ্য জানা যায়। পূজায় হিন্দু ভক্তদের পাশাপাশি মুসলিম ও বিদেশিদের দেখা গেছে।

গুলশান বনানীর দুর্গাপূজা

বনানী মাঠে অনুষ্ঠিত গুলশান-বনানী সার্বজনীন পূজা মণ্ডপ সারাদিনই ছিল লোক জনে ঠাসা। সন্ধ্যায় মন্দির প্রবেশে লোকজনকে দীর্ঘ লাইনে দাড়িয়ে থাকতে দেখা যায়। ভিআইপিদের ও মিডিয়ার জন্য করা হয়েছিল আলাদা গেইট। সেখানে তেমন ভিড় না থাকলেও ভিতরে ভিআইপি অবস্থান ছিললোকে লোকারণ্য। সবাই মা দুর্গার সামনে সেলফি তুলতে ব্যস্ত ছিল। এবার বনানী পূজা মণ্ডপে ৪ কোটি টাকা খরচ করা হয়েছে বলে জানালেন মন্দিরের এক কর্মকর্তা। বনানী মাঠে আয়োজন করা হয়েছে সাংস্কৃতিক মঞ্চ। পূজার ৪ দিন এই মঞ্চে বিভিন্ন অনুষ্ঠান হবে। এতে অংশ নিচ্ছেন বাংলাদেশের নামী দামী সংগীত শিল্পী ও অভিনেতা অভিনেত্রী। গভীর রাত পর্যন্ত চলছে এই অনুষ্ঠান। নিরাপত্তাও কঠোর করা হয়েছে। অনুষ্ঠানে আগতদের বড় ব্যাগ বহনে নিষেধ করা হয়েছে আগে থেকেই।

কলাবাগান মাঠের দুর্গাপূজা,ঢাকা

কলাবাগান মাঠেও দেখা গেল একই দৃশ্য। পুরো মাঠে অবস্থান করছে হাজারো লোক। মাঠে তিল ধরনের জায়গা নেই। এরই মধ্যে দুর্গা প্রতিমা দর্শন করে ঘরে ফিরছে সনাতন ধর্মাবলম্বীরা। মণ্ডপের বাইরে মঞ্চ বানিয়ে চলছে গানের আসর। স্থানীয় লোকজন এসব উপভোগ করছে। হিন্দু মুসলিম সবার অংশগ্রহণে দুর্গাপূজা অন্য এক রুপ নিয়েছে এই কলাবাগান মাঠে। বেশিরভাগ লোক পরিবারের সব সদস্য নিয়ে পূজা মণ্ডপে ঢুকছে। তাদের সকলের মাঝে ছিল আনন্দের রেশ।

ঢাকেশ্বরী মন্দিরের দুর্গাপূজা

ঢাকানিউজ২৪ডটকম