ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় নাট্য সংসদের নাট্যোৎসব-২০১৯ সমাপ্ত

ওবায়দুর রহমান সোহান, ঢাবি: এক ঝাক তরুন সংস্কৃতিমনা শিক্ষার্থীদের দিন রাত অক্লান্ত পরিশ্রমের মাধ্যমে আনন্দমুখর পরিবেশে ধুমধামের সাথে ৩রা অক্টোবর ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় টিএসসিতে সন্ধ্যা ৭ টায় ‘আরশিনগর’ প্রযোজিত, জনপ্রিয় নাট্য নির্দেশক রেজা আরিফের নির্দেশিত নাটক ‘রহু চন্ডালের হাড়’ মঞ্চায়নের মাধ্যমে পর্দা নামলো গার্ডিয়ান লাইফ, ৩য় ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় নাট্য সংসদ নাট্যোৎসব-২০১৯ ।

০১অক্টোবর ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের মাননীয় উপাচার্য অধ্যাপক ড. মোঃ আখতারুজ্জামান তিন দিন (১-৩ অক্টবর) ব্যাপি এ নাট্যোৎসবের উৎসবের উদ্বোধন করেন।

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় নাট্য সংদের সভাপতি সানোয়ারুল হক সনির সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন যুব ও ক্রীড়া মন্ত্রণালয়ের মাননীয় প্রতিমন্ত্রী মোঃ জাহিদ আহসান রাসেল।

বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় নাট্য সংসদের মডারেটর এবং থিয়েটার এন্ড পারফরম্যান্স স্টাডিজ বিভাগের মাননীয় চেয়ারম্যান ড. আহমেদুল কবির। এছাড়াও, অনুষ্ঠানে আরো উপস্থিত ছিলেন ওয়ান বাংলাদেশের সভাপতি অধ্যাপক রাশিদুল হাসান, ই কাঁচাবাজারের সিইও আবুল হাসনাত সোহাগ। অনুষ্টানে সকল অতিথিকে শুভেচ্ছা স্মারক প্রদান করা হয়।

তিন দিন ব্যাপি এ নাট্য উৎসবের উদ্বোধনী সন্ধ্যায় (১লা অক্টবর) মঞ্চস্থ হয়েছে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় নাট্য সংসদের প্রযোজনা এবং তরুন নাট্য নির্দেশক সানোয়ারুল হক সনির নির্দেশনায় নাটক ”ইনডেমনিটি”।

দ্বিতীয় দিন (২রা অক্টবর) মঞ্চস্থ হয় মহাকাল নাট্য সম্প্রদায়ের প্রযোজনা, আনন জামান রচিত ও ড. ইউসুফ হাসান অর্ক নির্দেশিত নাটক “নীলাখ্যান”।

সমাপনী সন্ধ্যায় (০৩ রা অক্টোবর) অভিজিৎ সেনের রচনা ও রেজা আরিফের নাট্যরুপ ও নির্দেশনায় মঞ্চস্থ হয় রহু চন্ডালের হাড়।

তিন দিনের এই নাট্য উৎসবের সমাপনীতে ঢাবি নাট্য সংসদের সভাপতি সানোয়ারুল হক সনি বলেন, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় নাট্য সংসদ বিশ্ববিদ্যালয়ের সাংস্কৃতিক চর্চাকে আরো এগিয়ে নিতে বদ্ধ পরিকর৷ তার ধারাবাহিকতায় আমাদের এই উৎসব। উৎসবের পৃষ্ঠপোষক, আমাদের সদস্যবৃন্দ ও সর্বোপরি দর্শকদের কাছে আমরা কৃতজ্ঞ।

ঢাবি নাট্য সংসদের সাধারণ সম্পাদক ও ডাকসু সদস্য রফিকুল ইসলাম সবুজ বলেন ,আমাদের এই উৎসবে যেমন বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের প্রযোজনা রয়েছে তেমনি ঢাকার দলগুলোর প্রযোজনা মঞ্চায়ন হচ্ছে। এতে আমরা নিজেদের ও বাইরের আয়োজন দেখার মাধ্যমে যেমন সাংস্কৃতিক বিনিময় ঘটাতে পারবো তেমনি নিজেদের অভিজ্ঞতায় নতুন পালক যুক্ত হবে। আমরা বিশ্বাস করি এই উৎসবের মাধ্যমে বিশ্ববিদ্যালয়ের সাংস্কৃতিক চর্চায় নতুন মাত্রা যুক্ত হবে।

উল্লেখ্য, “মঞ্চ হোক মুক্তির পথ” এই স্লোগানকে সামনে রেখে ২০১৬ সালের ১ ডিসেম্বর যাত্রা শুরু করে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় নাট্য সংসদ। হাটি হাটি পাপা করে আগামি ১লা ডিসেম্বর প্রতিষ্টার তিন বছর পূর্ণ করতে যাচ্ছে এ সংগঠনটি। প্রতিষ্ঠালগ্ন থেকেই বিভিন্ন সামাজিক কর্মকান্ড নিয়ে বিভিন্ন পথনাটক মঞ্চস্থ করার মাধ্যমে দেশে এবং দেশের বাইরে অনেক সুনাম কুড়িয়েছে এ সংগঠনটি। এছাড়াও নাট্য সংসদ দুইটি নাট্যোৎসব, তিনটি পূর্ণাঙ্গ নাট্য প্রযোজনা এবং দেশের বাইরেও প্রদর্শণীও করেছে।