সড়ক পরিবহন আইনের প্রয়োগ নেই: ইলিয়াস কাঞ্চন

সুমন দত্ত: দেশে সড়ক পরিবহন আইন ২০১৮ পাস হলেও এর বাস্তবায়ন হয়নি। এজন্য সরকার প্রশাসনের ওপর ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন নিরাপদ সড়ক চাই আন্দোলনের নেতা চিত্র নায়ক ইলিয়াস কাঞ্চন। মঙ্গলবার জাতীয় প্রেসক্লাবে এক সংবাদ সম্মেলনে এ কথা বলেন তিনি। কিছু পরিবহন নেতা তাকে শ্রমিকদের প্রতিপক্ষ হিসেবে দাড় করিয়ে দিচ্ছে। এমন অভিযোগ করেন তিনি।

সড়কে নৈরাজ্য ও বিশৃঙ্খলা আগের মতই আছে। শিক্ষার্থীদের গণ আন্দোলনেও পরিবহন ব্যবস্থায় ফিরে আসেনি শৃঙ্খলা। দুর্ঘটনা আগের মতই ঘটছে। থামছে না সড়কে মৃত্যুর মিছিল। মালিকরা আগের মতই চালকদের কাছে চুক্তিতে গাড়ি ছেড়ে দিচ্ছে, আর নিজেদের পকেট ভারি করছে, সড়কে লেগে আছে একই রুটে একাধিক গাড়ির অসম প্রতিযোগিতা। এমন অবস্থায় সড়ক পরিবহন আইন ২০১৮ সংসদে পাস হলেও এর বিধিমালা তৈরি না হওয়ার কথা জানালেন ইলিয়াস কাঞ্চন।

ইলিয়াস কাঞ্চন বলেন, আমরা নিরাপদ সড়কের দাবিতে দীর্ঘদিন যাবত আন্দোলন করে যাচ্ছি। সরকারের কাছে আমাদের অনেক দাবি ছিল। সরকার আমাদের সব দাবি মেনে নেয়নি। তারপরও আমরা খুশি হয়েছিলাম এ সংক্রান্ত নতুন আইন হওয়ায়। সব পক্ষকে ম্যানেজ করেই এই আইন হয়েছিল। দু:খের বিষয় এই আইনের জন্য বিধিমালা তৈরি না হওয়ার কারণে আইনটি প্রয়োগ করা যাচ্ছে না। এরই মধ্যে সরকার নতুন আইন সংশোধন করবে, এমন গুঞ্জন উঠেছে। এতে আমরা হতাশ।

তিনি আরো বলেন, এক শ্রেণির পরিবহণ সংশ্লিষ্ট নেতা আমাকে শ্রমিকদের বিরুদ্ধে দাড় করানোর চেষ্টা করছে। এসব নেতারা চালকদের কাছে আমার সম্পর্কে বিষদগার করছে। আমাকে বিভিন্ন এলাকায় প্রবেশে অবাঞ্ছিত ঘোষণা করছে। অথচ সকলেই জানে আমি কি কারণে এই নিরাপদ সড়ক চাই আন্দোলনে নেমেছি। ২০ বছর আগে আমার স্ত্রী সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত হওয়ায় আমি নিরাপদ সড়ক চাই আন্দোলনে নামি। অথচ কুচক্রী পরিবহন নেতারা আমার কাজকে অন্যের কাছে নেতিবাচক দৃষ্টিকোণ থেকে প্রচার করছে।