ভোট ডাকাতি করে সরকার ক্যাসিনো-জুয়ার চেয়েও বেশী অপরাধ করেছে:মির্জা ফখরুল

নিজস্ব প্রতিবেদক, ময়মনসিংহ : বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেছেন ভোট ডাকাতি করে সরকার ক্যাসিনো ও জুয়ার চাইতেও বেশী অপরাধ করেছে। ৩০ ডিসেম্বরের ভোট ২৯ ডিসেম্বর রাতেই ব্যালট বাক্স ভর্তি করেছে ফেলেছে। সরকার এদেশের মানুষের মৌলিক অধিকারকেই শুধু হরণ করেনি গণতন্ত্রকেও অবরুদ্ধ করেছে সেইসাথে মাদার অব ডেমোক্রেসি দেশনেত্রী বেগম খালেদা জিয়াকে অবরুদ্ধ করে মানুষের প্রত্যাশাকেও অবরুদ্ধ করেছে। তাইতো যতই দিন যাচ্ছে বিএনপি ততই শক্তিশালী হচ্ছে। তিনি বলেন বেগম খালেদা জিয়ার জনপ্রিয়তা দেখে ঈশ্বান্বিত হয়ে জোর করে সরকার তাকে আটকে রেখেছে। আগামী দিনে দলের সকল ভেদাভেদ ভুলে দলমত নির্বিশেষে ঐক্যবদ্ধভাবে বেগম খালেদা জিয়াকে মুক্ত করে আমরা ঘরে ফিরবো ইনশাল্লাহ।

বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার মুক্তি দাবিতে ময়মনসিংহ নগরীর ময়মনসিংহ রেলওয়ে কৃষ্ণচূড়া চত্বরে গতকাল বৃহস্পতিবার বিকেলে অনুষ্ঠিত বিভাগীয় বিশাল সমাবেশে প্রধান অতিথির বক্তব্যে মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর এসব কথা বলেন।

ময়মনসিংহ দক্ষিণ জেলা বিএনপির ভারপ্রাপ্ত সভাপতি অধ্যাপক শফিকুল ইসলামের সভাপতিত্বে এবং আবু ওয়াহাব আকন্দ ও মোতাহার হোসেন তালুকদারের সঞ্চালনায় সমাবেশে বক্তব্য রাখেন ড. খন্দকার মোশাররফ হোসেন, মির্জা আব্বাস, নজরুল ইসলাস খান, গয়শ্বর চন্দ্র রায়, ডাঃ এ.জেড এম জাহিদ হোসেন, অ্যাডভোকেট ফজলুর রহমান, মোয়াজ্জেম হোসেন আলাল, খায়রুল কবির খোকন, ফজলুল হক মিলন, সৈয়দ এমরান সালেহ প্রিন্স, ডাঃ মাববুবুর রহমান লিটন, শ্যামা ওবায়েদ, শামসুল আলম তোফা, সুলতান সালাহ উদ্দিন টুকু, আব্দুল কাদের ভূইয়া জুয়েল প্রমূখ।

বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য ড. খন্দকার মোশাররফ হোসেন জনগণ কর্তৃক এই সরকার নির্বাচিত নয় বলেই দেশের বিভিন্ন ক্ষেত্রে এখন নিয়ন্ত্রণ নেই সরকারের। ঢাকা মসজিদের শহর এখন ক্যাসিনোর শহরে রূপান্তর হয়েছে। তিনগুন ট্যাক্স বৃদ্ধি করলেও তা দেশের উন্নয়নের কাজে লাগিয়ে নেতাদের পকেটের উন্নতি হচ্ছে।

বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য মির্জা আব্বাস বেগম খালেদা জিয়াকে উদ্দেশ্য কলে বলেছেন আপনার ভয়ের কিছু নেই, সারাবাংলার মানুষ আপনার পাশে আছে। তিনি বলেন সারাদেশের হাজার হাজার বিএনপির নেতাকর্র্মীকে জেলে পাঠিয়েও বিএনপির জনপ্রিয়তা কমেনি বরং আরো বৃদ্ধি পাচ্ছে।

বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য গয়শ্বর চন্দ্র রায় বলেছেন মাদার অব ডেমোক্রেসি দেশনেত্রী বেগম খালেদা জিয়ার মুক্তির আন্দোলনে এখন থেকে প্রশাসনের কোনো অনুমতি নেবে না বিএনপি। বাধা দিলে পাল্টা বাধা দেয়া হবে। তিনি বলেন বর্তমানে আওয়ামীলীগের কোনো রাজনীতি নেই, তারা এখন লুটপাটে মহাব্যস্ত। অনির্বাচিত সরকারের টোকাই নেতারা যদি হাজার হাজার কোটি টাকার মালিক হয়ে থাকে তবে বড় নেতারা যারা সচিবালয় চালান, তারা কত হাজার কোটি টাকার মালিক? এখন চুনুপুটিদের ধরে আইওয়াস করে কোনো লাভ নেই। বড় বড় রাঘব বোয়ালদের না ধরলে জনগণই তাদের ধরে বিচার করবে।

গত কয়েকদিন ধরে কেন্দ্রীয় বিএনপি ময়মনসিংহ বিভাগীয় সমাবেশের আয়োজনের প্রস্ততি নিলেও সমাবেশের স্থানের কোনো অনুমতি দেয়নি প্রশাসন। অবশেষে বৃহস্পতিবার সকালে ময়মনসিংহ রেলওয়ে কৃষ্ণচূড়া চত্বরে নানা শর্তে সামাবেশের অনুমতি দয়ে প্রশাসন।

ঢাকানিউজ২৪ডটকম/জাহিদ।