মঠবাড়িয়ায় মাদ্রাসা সুপারের বিরুদ্ধে দুর্নীতির অভিযোগ

মজিবর রহমান,পিরোজপুর প্রতিনিধি: পিরোজপুরের মঠবাড়িয়া উপজেলার কাকড়া বুনিয়া বালিকা আলিম মাদ্রাসার কম্পিউটর শিক্ষক মনিরুল ইসলামের বিরুদ্ধে জাল জালিয়াতির মাধ্যমে কম্পিউটর শিক্ষক ও সুপার পদে নিয়োগে ব্যাপক দুর্নীতির অভিযোগ উঠেছে।

অভিযোগে জানা গেছে, উপজেলার হারজিনল বুনিয়া গ্রামের মৃত্যু মকফের আলী ছেলে মনিরুল ইসলাম গত ৪/১২/৯৬ সালেকাকড়া বুনিয়া বালিকা দাখিল মাদ্রাসায় ডিগ্রি পাসের সনদ না দিয়ে বিধি বহিবহির ভাবে নিয়োগ নিয়ে ৪/১/১৪ সাল পর্যন্ত কম্পিউটর শিক্ষকের স্কেলে বেতন ভাতা গ্রহন করে।

এরপর তিনি সাবেক উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা কর্মকর্তা সেলিম মিয়া ও তার মাদ্রাসার সুপার নুরুজ্ঝামান এর যোগসাযোগে তথ্য গোপন করে জাল- জালিয়াতির মাধ্যমে সহকারি মৌলভী পদে অব্যাহতি পএ ও বারো বছরের সহকারি মৌলভী পদের অভিজ্ঞতা সৃষ্টি করে উপজেলার তুষখালী ইউনিয়নের ছালেহিয়া পশ্চিশ ছোট মাছুয়া দাখিল মাদ্রসায় ৫/১/২০১৪ তারিখ সুপার পদে নিয়োগ নিয়ে সরকারের লক্ষ লক্ষ টাকা হাতিয়ে নেয়।

স্থানীয় মিঠাখালী গুদিঘাটা আলিম মাদ্রাসার অধ্যক্ষ মাওলানা মাহফুজুল্লা জানান, অনিয়মতান্ত্রিক ভাবে মনিরুল ইসলাম নিয়োগ নিয়েছেন। যাহা মাদ্রাসা শিক্ষা নীতিমালার পরিপন্থি। এ বিষয়ে কাকড়াবুনিয়া বালিকা মাদ্রাসার অধ্যক্ষ নুরুজ্জামান অভিযুক্ত ওই শিক্ষকের নিয়োগ কালীন প্রয়োজনীয় কাগজ পএ দেখতে চাইলে তিনি তা দেখাতে অপারগতা প্রকাশ করেন।

মনিরুল ইসলামের কাছে যোগাযোগ করলে তিনি জানান, এ ব্যাপারে আদালতে মামলা হয়েছিল ।তা ছাড়া কম্পিউটর নিয়োগের সকল কাগজে স্বাক্ষর আমার। কিন্ত এ কাগজ কে বা কারা সৃষ্টি করেছেন তা আমি জানি না । জেলা মাধ্যমিক শিক্ষা কর্মকর্তা সুনিল চন্দ্র সেন জানান, কম্পিউটর শিক্ষক সুপার পদে নিয়োগ পাওয়ার বিধান নেই।