পদ্মা নদীতে স্রোত বৃদ্ধি ও নব্যতা সংকট

নিউজ ডেস্ক:    পদ্মা নদীতে স্রোতের গতি বৃদ্ধি ও নব্যতা সংকটের কারণে শিমুলিয়া-কাঁঠালবাড়ি নৌরুটে ফেরি চলাচল বন্ধ রয়েছে। গতকাল শনিবার দিবাগত রাত সাড়ে ৩টা থেকে ফেরি চলাচল বন্ধ করে দেয় বাংলাদেশ অভ্যন্তরীণ নৌপরিবহন কর্তৃপক্ষ (বিআইডব্লিউটিসি)।

আজ রোববার সকালে মুন্সীগঞ্জের শিমুলিয়া ঘাটে ৫২টি নাইটকোচ, ২ শতাধিক ছোটগাড়ি এবং ৪ শতাধিক ট্রাক পারাপারের অপেক্ষায় রয়েছে। বেলা বাড়ার সঙ্গে সঙ্গে যানবাহনের চাপ বৃদ্ধি পাচ্ছে। এতে করে দুর্ভোগে পড়ছে যাত্রীরা।

জানা যায়, গত ৪-৫ দিন যাবৎ স্রোতের চাপে ফেরি চলাচল ব্যাহত হয়েছে। ১৭টি ফেরির মধ্যে ৮-১০টি ফেরি দিয়ে যানবাহন পারাপার করা হচ্ছিল। চ্যানেলের মুখে ফেরি প্রবেশ করার সময় স্রোতের চাপে ঘুরে যায় এবং বালু জমে যাওয়ায় কোথাও কোথাও ফেরি আটকে যায়। এ ছাড়া লৌহজং টার্নিং পয়েন্টে গত রাতে কয়েক ঘণ্টা ডুবোচরে দুটো ফেরি আটকা পড়েছিল।

বিআইডব্লিউটিসি মাওয়ার উপ-মহাব্যবস্থাপক নাছির মোহাম্মদ চৌধুরী বলেন, ‘নদীতে রোলিং বেশি ও পলি পরে নাব্যতা সংকটের সৃষ্টি হয়েছে। শনিবার রাত সাড়ে ৩টা থেকে দুর্ঘটনা এড়াতে সকল ফেরি চলাচল বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে।’

বিআইডব্লিডটিসি’র এই কর্মকর্তা আরও বলেন, ‘আমাদের মেরিন বিভাগ বিআইডব্লিউটিএ’র সাথে যোগাযোগ করছে। বিআইডব্লিউটিএ ড্রেজিং করে দিলে ফেরি চালু করা সম্ভব হবে।’