শেরপুর-ফুলপুর-ময়মনসিংহ মহাসড়ক ৮৫৫ কোটি টাকা ব্যয়ে প্রশস্ত হচ্ছে

মো. নজরুল ইসলাম, ময়মনসিংহ :
বহুল প্রত্যাশিত শেরপুর-নকলা-ফুলপুর ময়মনসিংহ সড়কটি প্রায় ৩৬ ফুট প্রশস্ত এবং শক্তিশালী করে পুননির্মিত হচ্ছে ৮৫৫ কোটি ৪৮ লক্ষ টাকা ব্যয়ে । শেরপুর ও হালুয়ঘাট ও ফুলপুরবাসীর দীর্ঘদিনের দাবীর প্রেক্ষিতে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা প্রায় ফোরলেন প্রশস্ত করে এই সড়কটি নির্মাণে অনুমোদন দেয়ায় ময়মনসিংহ বিভাগ উন্নয়ন পরিষদসহ বিভিন্ন সংগঠন প্রধানমন্ত্রীকে আন্তরিক ধন্যবাদ ও কৃতজ্ঞতা জানিয়েছেন।
সড়ক পরিবহন ও মহাসড়ক বিভাগের সিনিয়র সচিব নজরুল ইসলাম জানান, গত ১৭ সেপ্টেম্বর মঙ্গলবার রাজধানী ঢাকার শেরেবাংলা নগরের এনইসি সম্মেলন কক্ষে জাতীয় অর্থনৈতিক পরিষদের নির্বাহী কমিটির (একনেক) চেয়ারপারসন ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সভাপতিত্বে ওই প্রকল্পের অনুমোদন দেওয়া হয়। ওই প্রকল্পের আওতায় ময়মনসিংহ (রঘুরামপুর)-ফুলপুর-নকলা-শেরপুর আঞ্চলিক মহাসড়কটি (আর-৩৭১) ফোরলেনের কাছাকাছি প্রায় ৩৬ ফুট প্রশস্ত করা হবে। প্রকল্পটির প্রাক্কলিত ব্যয় ধরা হয়েছে প্রায় ৮৫৫ কোটি ৪৮ লক্ষ টাকা। এর মধ্যে শেরপুর সড়ক বিভাগের আওতায় ৩০.৪০ কি.মি ও ময়মনসিংহ সড়ক বিভাগের আওতায় ৩৭.৮৬ কি.মি সড়কসহ মোট ৬৮.২৬ কি.মি সড়ক রয়েছে।

সড়ক ও জনপথ অধিপ্তরের ময়মনসিংহ জোনের অতিরিক্ত প্রধান প্রকৌশলী মোঃ সাইফুল আলম জানান, ময়মনসিংহ বিভাগের জনগুরুত্বপূর্ণ (রঘুরামপুর)-ফুলপুর-নকলা-শেরপুর আঞ্চলিক মহাসড়কটি (আর-৩৭১) ফোরলেনের কাছাকাছি প্রায় ৩৬ ফুট প্রশস্ত করে শক্তিশালী রূপে পুননির্মাণের জন্য প্রকল্প তৈরী করে তা অনুমোদনের এরআগে প্রেরণ হয়। মন্ত্রণালয় থেকে জিও এবং প্রকল্প পরিচালক নিয়োগ হওয়ার পর খুব দ্রুত সময়ের মধ্যেই এই সড়কের দরপত্র আহবান এবং প্রয়োজনীয় প্রক্রিয়া শেষে কাজ শুরু করা হবে বলে অতিরিক্ত প্রধান প্রকৌশলী জনান।

এই সড়কটি নির্মিত হলে উত্তরের গারো পাহাড়সহ সীমান্তের প্রাকৃতিক দৃশ্য অবলোকনে পর্যকটরা সহজে যাতায়াত করতে পারবেন। সেইসাথে শেরপুর ও উত্তর ময়মনসিংহের উপজেলাগুলোতে উৎপাদিত উদৃত্ত কৃষিপণ্য সহজে পরিবহন করতে পারবে। এ অঞ্চলে আর্থসামাজিক আরো উন্নয়ন ঘটবে বলে সড়ক বিভাগের প্রকৌশলীরা জানান।

এদিকে একনেকের সভায় ময়মনসিংহ-শেরপুর আঞ্চলিক মহাসড়কটি প্রশস্তকরণ প্রকল্পটি অনুমোদন হওয়ায় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাসহ সংশ্লিষ্টদের প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেছেন ময়মনসিংহ বিভাগ উন্নয়ন পরিষদের সভাপতি অ্যাডভোকেট আনিসুর রহমান খান, যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক প্রকৌশলী নুরুল আমিন, ময়মনসিংহ বিভাগীয় প্রেসক্লাবের সভাপতি এফ. এম. এ সালাম ও বিভাগীয় প্রেসক্লাবের সিনিয়র সহ-সভাপতি রফিকুল ইসলাম আধার এবং বিভাগীয় প্রেসক্লাব সাধারণ সম্পাদক মোঃ নজরুল ইসলাম। সেইসাথে তারা দ্রুততম সময়ে মানসম্পন্নভাবে প্রকল্পটি বাস্তবায়নের মাধ্যমে এ অঞ্চলের যাতায়াত সহজতর হওয়ার পাশাপাশি অর্থনৈতিক উন্নয়নে আঞ্চলিক মহাসড়কটি এক বিশাল ইতিবাচক প্রভাব বয়ে আনবে বলে আশা প্রকাশ করেন।