ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় যুবলীগ নেতাকে ঘরে ঢুকে গুলি করে হত্যা

নিউজ ডেস্ক: ব্রাহ্মণবাড়িয়ার বাঞ্ছারামপুর উপজেলায় সুমন মিয়া (৩৫) নামের স্থানীয় এক যুবলীগ নেতাকে ঘরে ঢুকে গুলি করে হত্যা করেছে প্রতিপক্ষের লোকজন। সোমবার রাত ১টার দিকে উপজেলার সলিমাবাদ ইউনিয়নের পাইকারচর গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। পুলিশ এ ঘটনায় চারজনকে আটক করেছে।

নিহত সুমন সলিমাবাদ ইউনিয়নের ৩ নম্বর ওয়ার্ড যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক ও পাইকারচর গ্রামের মৃত মনু মিয়ার ছেলে। এ ঘটনায় আব্দুল আওয়াল (৬০) নামের একজন গুলিবিদ্ধ ও অপর চারজন আহত হয়েছে। আহতরা হলেন- কামরুজ্জামান (৩৭), জালাল মিয়া (৪০), মনির হোসেন (৩৫) ও করিম (৪০)। তাদের উন্নত চিকিৎসার জন্য ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।

স্থানীয়রা জানান, সলিমাবাদ ইউনিয়নের তাতুয়াকান্দি গ্রামের অলি মেম্বার ও ইকবাল হোসেনের মধ্যে দীর্ঘদিন ধরে বিরোধ চলছিল। এর জের ধরে সোমবার রাতে ইকবালের নেতৃত্বে তার সহযোগীরা অস্ত্র-শস্ত্র নিয়ে পাইকারচর গ্রামে দানা মিয়ার বাড়িতে অলি মেম্বারের সমর্থকদের ওপর হামলা চালায়। এ সময় হামলাকারীরা সুমন ও আওয়ালকে গুলি করে। বাকিদের টেটা বিদ্ধ করে ও দা দিয়ে কুপিয়ে আহত করে। পরে আহতদের উদ্ধার করে বাঞ্ছারামপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নেওয়া হলে চিকিৎসক সুমনকে মৃত ঘোষণা করেন। বাকিদের ঢাকায় পাঠানো হয়।

বাঞ্ছারামপুর মডেল থানার ওসি সালাউদ্দিন চৌধুরী জানান, এ ঘটনায় চারজনকে আটক করা হয়েছে।

ঢাকানিউজ২৪ডটকম/জাহিদ।