টাকার যত্নে বাংলাদেশ ব্যাংকের নির্দেশনা কেউ মানে না

সুমন দত্ত: টাকা একটি গুরুত্বপূর্ণ বস্তু। প্রতিদিন বিভিন্ন কাজে ব্যবহার হয় টাকা। আর এই টাকার যত্ন ঠিকমত হয় না। সম্প্রতি বাংলাদেশ ব্যাংক টাকার যত্নে ব্যাংকগুলোকে কিছু নির্দেশনা দিয়েছে । এই নির্দেশ অমান্য করলে কি সাজা? তা জানায়নি কেন্দ্রীয় ব্যাংক।

ব্যাংকগুলো কেন্দ্রীয় ব্যাংকের এই নির্দেশ মানবে বলে মনে হয় না। এর আগেও বাংলাদেশ ব্যাংক নোটের ওপর ছিদ্র না করার নির্দেশ দিয়েছিল। কিন্তু সে নির্দেশ পাশ কাটিয়ে ব্যাংকগুলো দেদারছে টাকার ওপর স্ট্যাপলিং করেছে।

এবার নির্দেশ দেয়া হয়েছে একহাজার টাকা বাদে সব ধরনের টাকার ওপর স্ট্যাপলিং করা যাবে না। টাকার ওপর লেখালিখি ও সিল মারা যাবে না। ব্যাংকগুলো আগেও কেন্দ্রীয় ব্যাংকের নির্দেশ মানেনি। এবার মানবে কোন যুক্তিতে? খোদ বাংলাদেশ ব্যাংকের সদরঘাট শাখা বড় ছিদ্রযুক্ত টাকা সাধারণ পাবলিককে দেয়। এমন তথ্য দিয়েছে টাকা বদল করতে যাওয়া এক সাধারণ পাবলিক।

খোঁজ নিয়ে এ কথার সত্যতা মিলেছে। ব্যাংকের বুথেই পাওয়া গেল বড় ছিদ্রযুক্ত পাঁচশ টাকার একাধিক নোট অথচ টাকাগুলো নতুন। ব্যাংকের ওই কর্মচারী বললেন কোনো সমস্যা নেই এ টাকা গুলো চলবে। না চললে আমাদের কাছে নিয়ে আইসেন।

টাকা স্ট্যাপল করতে করতে নতুন টাকাগুলোর আয়ু শেষ করে দিচ্ছে খোদ কেন্দ্রীয় ব্যাংকের শাখা অফিস। আর সরকারি বেসরকারি ব্যাংকের কথা নাইবা বললাম।। যে নির্দেশ ব্যাংক কর্তৃপক্ষ নিজেই মানে না সেই নির্দেশ অন্যরা কোন যুক্তিতে মানবে?

পুরান ঢাকার নর্থব্রুক হল রোডের ন্যাশনাল ব্যাংক শাখা টাকা স্ট্যাপল করার মেশিন কিনেছে। সেখানে টাকা ওপর স্টাপলিং করে যাচ্ছে তারা। নতুন পুরান সব টাকার ওপরই তারা স্ট্যাপল করছে। একই ঘটনা অন্য ব্যাংকগুলোতেও চোখে পড়ে।

ঢাকানিউজ৪২৪ডটকম