সাদ-রাজু-রিটাসহ ১১ প্রার্থীর মনোনয়নপত্র সংগ্রহ

নিউজ ডেস্ক:    রংপুর-৩ আসনে উপ-নির্বাচনে এইচএম এরশাদের মৃত্যুতে শূন্য হওয়া হেভিওয়েট প্রার্থী সাদ এরশাদ, এসএম ইয়াসীর, অ্যাডভোকেট রেজাউল করিম রাজুসহ অন্তত এক ডজন প্রার্থী মনোনয়নপত্র সংগ্রহ করেছেন। রবিবার সকাল থেকে বিকেল ৫টা পর্যন্ত রংপুর আঞ্চলিক নির্বাচন কার্যালয় থেকে মনোনয়নপত্র সংগ্রহ করেন তারা।

নির্বাচন কার্যালয় সূত্রে জানা গেছে, জাতীয় পার্টি মনোনীত প্রার্থী রওশনপুত্র রাহগীর আল মাহি সাদ এরশাদ, আওয়ামী লীগ মনোনীত প্রার্থী অ্যাডভোকেট রেজাউল করিম রাজু, বিএনপি মনোনীত পিপলস পার্টি অব বাংলাদেশের চেয়ারম্যান রিটা রহমান মনোনয়নপত্র সংগ্রহ করেছেন।

এছাড়াও মনোনয়নপত্র সংগ্রহ করেছেন জাতীয় পার্টির যুগ্ম মহাসচিব ও রংপুর মহানগরের সাধারণ সম্পাদক এস.এম ইয়াসীর, স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসেবে এরশাদের ভাতিজা সাবেক এমপি হোসেন মকবুল শাহরিয়ার আসিফ, জেলা জাতীয় পার্টির সাধারণ সম্পাদক এস. এম ফখর-উজ-জামান জাহাঙ্গীর, মহানগর আওয়ামী লীগের শ্রম বিষয়ক সম্পাদক শ্রমিক নেতা এম এ মজিদ, মহানগর বিএনপির সহ-সভাপতি কাওছার জামান বাবলা, খেলাফত মজলিসের তৌহিদুর রহমান মন্ডল, গণফ্রন্টের কাজী শহিদুল্লাহ, ন্যাশনাল পিপলস পার্টির রংপুর জেলার যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক শফিউল আলম।

সকাল থেকে উৎসবমুখর পরিবেশে বিভিন্ন প্রার্থীদের পক্ষে দলের নেতা-কর্মী ও সমর্থকরা নির্বাচন কার্যালয়ের সামনে জমায়েত হতে থাকেন। পরে দলের প্রার্থীদের পক্ষে নির্বাচন কর্মকর্তার কাছ থেকে মনোনয়নপত্র সংগ্রহ করেন।

এদিকে আওয়ামী লীগের মনোনয়ন নিয়ে দ্বন্দ্ব না থাকলেও জাতীয় পার্টিতে তা প্রকাশ্যে রূপ নিয়েছে। দলটির জেলার একটি অংশ সাদ এরশাদের ও এস. এম ফখর-উজ-জামান জাহাঙ্গীরের পক্ষে এবং মহানগর কমিটির নেতা-কর্মীদেরকে এস এম ইয়াসীরের পক্ষে মনোনয়ন সংগ্রহে অংশ নিতে দেখা যায়। এছাড়াও এরশাদের ভাতিজা আসিফ শাহরিয়ারের পক্ষে পার্টির আরেকটি অংশ পৃথকভাবে কাজ করছে।

এ ব্যাপারে রংপুর অঞ্চলের আঞ্চলিক নির্বাচন কর্মকর্তা জিএম সাহাতাব উদ্দিন সাংবাদিকদের জানান, সকাল থেকে বিকেল সাড়ে ৪টা পর্যন্ত আওয়ামী লীগ, বিএনপি ও জাতীয় পার্টির বিভিন্ন দলের ১১ জন মনোনয়নপত্র সংগ্রহ করেছেন। আগামীকাল জমা দেয়ার শেষ দিন।

জাতীয় পার্টির প্রতিষ্ঠাতা চেয়ারম্যান প্রয়াত হুসেইন মুহম্মদ এরশাদের শূন্য ঘোষিত রংপুর-৩ আসনে উপ-নির্বাচনের জন্য গত ১ সেপ্টেম্বর তফসিল ঘোষণা করে নির্বাচন কমিশন। ঘোষিত তফসিল অনুযায়ী, এই নির্বাচনে মনোনয়নপত্র জমা দেয়া যাবে ৯ সেপ্টেম্বর পর্যন্ত, তা বাছাই হবে ১১ সেপ্টেম্বর, মনোনয়নপত্র প্রত্যাহারের শেষ তারিখ ১৬ সেপ্টেম্বর। তার ১৮ দিন পর ৫ অক্টোবর হবে ভোটগ্রহণ।

রংপুর সদর উপজেলা ও সিটি করপোরেশনের ৯ থেকে ৩৩নং ওয়ার্ড নিয়ে গঠিত এ আসনের মোট ভোটার সংখ্যা ৪ লাখ ৪২ হাজার ৭২ জন। এর মধ্যে পুরুষ ভোটার ২ লাখ ২১ হাজার ৩১০ জন এবং ২ লাখ ২০ হাজার ৭৬২ জন নারী ভোটার। ১৭৫টি কেন্দ্রে ইভিএমের মাধ্যমে ভোটগ্রহণ হবে।