উদ্বোধনের অপেক্ষায় ‘সৌহার্দ্যের প্রতীক’ শ্রম ভবন

নিউজ ডেস্ক:   উদ্বোধনের জন্য প্রস্তুত নবনির্মিত ‘সৌহার্দ্যের প্রতীক’ শ্রম ভবন। রাজধানীর বিজয়নগরে প্রায় ৬৯ কোটি টাকা ব্যয়ে শ্রম ও কর্মসংস্থান মন্ত্রণালয়ের নিজস্ব জমিতে ২৫ তলাবিশিষ্ট এই শ্রম ভবনের নির্মাণকাজ শেষ হয়েছে। বুধবার (৪ সেপ্টেম্বর) শ্রম মন্ত্রণালয়ের এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এই তথ্য জানানো হয়েছে।

এদিকে, শ্রম মন্ত্রণালয়ের একটি সূত্র জানায়, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সম্মতিতে তার দেওয়া সুবিধাজনক সময়ে এ ভবনের আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন করবেন তিনি।

শ্রম মন্ত্রণালয় জানায়, নবনির্মিত শ্রম ভবনে শ্রম ও কর্মসংস্থান মন্ত্রণালয়ের অধীন কলকারখানা ও প্রতিষ্ঠান পরিদর্শন অধিদফতর এবং শ্রম অধিদফতরের সব সেবা পাওয়া যাবে। দু’টি অধিদফতরের প্রধান কার্যালয় ছাড়াও থাকবে শ্রম অধিদফতরের ঢাকা বিভাগীয় অফিস। রেমিডিয়েশন কো-অডিনেশন সেল, কারখানা ও প্রতিষ্ঠান পরিদর্শন, শ্রম পরিস্থিতি পর্যবেক্ষণ, শ্রমিকদের ট্রেড ইউনিয়ন রেজিস্ট্রেশন, শ্রমিকদের ট্রেনিং, শ্রম অসন্তোষ নিরসনসহ শ্রমিকদের কল্যাণে নেওয়া সব ধরনের কার্যক্রম সম্পন্ন করা হবে এই ভবন থেকে।

শ্রম ভবন নির্মাণের বিষয়ে শ্রম ও কর্মসংস্থান প্রতিমন্ত্রী বেগম মন্নুজান সুফিয়ান বলেছেন, ‘মালিক-শ্রমিকের সব বিষয় এক ভবন থেকে সমাধান করা সম্ভব হবে। এতে মন্ত্রণালয়ের দু’টি অধিদফতরের কাজের গতি বাড়বে। এ ভবনটি মালিক-শ্রমিক, সরকারের সোহার্দ্যের প্রতীক হয়ে উঠবে।’

সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়, ইতোমধ্যেই ভবনের নির্মাণ কাজ সম্পন্ন হওয়ার পর সম্প্রতি মন্ত্রণালয়ের সচিব কে এম আলী আজম মন্ত্রণালয়ের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তাদের নিয়ে ভবনের খুঁটিনাটি দেখে এসেছেন। সরকারের নিজস্ব অর্থায়নে গণপূর্ত অধিদফতর এ ভবনের নির্মাণ কাজ সম্পন্ন করেছে। আধুনিক স্থাপত্যে নির্মিত এই বহুতল ভবনের ভূগর্ভের তিনটিসহ মোট চার তলা গাড়ি পার্কিং সুবিধা, দু’টি কার লিফট, একটি ইমার্জেন্সি লিফটসহ ছয়টি অত্যাধুনিক লিফট, সুবিশাল সম্মেলন কক্ষ, আধুনিক অগ্নিনির্বাপণ ব্যবস্থা এবং ডে-কেয়ার সেন্টারসহ সব সুবিধার সংযোজন করা হয়েছে।