লোকসভার স্পিকার ওম বিড়লার সাথে ড. শিরীন শারমিন চৌধুরী সাক্ষাৎ

নিউজ ডেস্ক:    স্পিকার ড. শিরীন শারমিন চৌধুরী বাংলাদেশ ও ভারতের মধ্যে ব্যবসা-বাণিজ্যের প্রসার, জ্বালানী খাতে বিনিয়োগ বৃদ্ধিসহ পারস্পরিক সহায়তা বৃদ্ধির আহবান জানিয়েছেন।তার সাথে ভারতের লোকসভার স্পিকার ওম বিড়লা সৌজন্য সাক্ষাৎ করলে তিনি এ আহবান জানান। মালদ্বীপের রাজধানী মালেতে গতকাল সকালে এ সাক্ষাৎ অনুষ্ঠিত হয়।

সাক্ষতকালে তাঁরা রোহিঙ্গা ইস্যু, সংসদীয় স্থায়ী কমিটির কার্য়ক্রম, সংসদীয় মৈত্রী গ্রুপ, ই-পার্লামেন্টসহ দুই দেশের পারস্পারিক স্বার্থ সংশ্লিষ্ট বিষয় নিয়ে আলোচনা করেন।স্পিকার ভারতের ১৭তম স্পিকার নির্বাচিত হওয়ায় ওম বিড়লাকে অভিনন্দন জানান।

তিনি বলেন, ভারত বাংলাদেশের প্রতিবেশী ও ঐতিহাসিক বন্ধু রাষ্ট্র। দু’দেশের বন্ধুত্বপূর্ণ সম্পর্ক এখন অনন্য উচ্চতায়। জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের নেতৃত্বে ১৯৭১ সালে স্বাধীনতা যুদ্ধে ভারতের সমর্থনের কথা উল্লেখ করে তিনি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেন। স্পিকার রোহিঙ্গা প্রত্যাবাসনে ভারতের সহায়তা প্রত্যাশার কথা উল্লেখ করেন।

তিনি বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা জনগণের কল্যাণ সাধনে নিরলস কাজ করে যাচ্ছেন। ২০৪১ সালের মধ্যে উন্নত সমৃদ্ধ বাংলাদেশ গড়াই তাঁর লক্ষ্য। ড. শিরীন শারমিন চৌধুরী এসময় লোকসভার স্পিকারকে বাংলাদেশ সফরের আমন্ত্রণ জানান।
ভারতের স্পিকার ওম বিড়লা রোহিঙ্গা প্রত্যাবাসনের বিষয়টি ভারত সরকারকে অবহিত করবেন বলে স্পিকারকে আশ্বস্ত করেন।

তিনি বলেন,সংসদীয় মৈত্রী গ্রুপের সফর বিনিময়, কর্মকর্তাদের প্রশিক্ষণ ভবিষ্যতে দু’দেশের সংসদীয় সম্পর্ককে আরও সুদৃঢ় করার আহবান জানান।