সামাজিক মাধ্যমে রাজনৈতিক পোস্টের জন্য যুক্তরাষ্ট্রের ভিসা বাতিল

নিউজ ডেস্ক:    সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে বন্ধুর একটি রাজনৈতিক পোস্টের জন্য হার্ভার্ড বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তির সুযোগ পেয়েও যুক্তরাষ্ট্রে প্রবেশ করতে পারেননি ইসমাইল আজজাবি নামের ফিলিস্তিনি এক তরুণ।

লেবাননে বসবাসরত এই তরুণ হার্ভার্ড বিশ্ববিদ্যালয়ে বৃত্তি নিয়ে পড়ার সুযোগ পান। সে লক্ষ্যে তিনি যুক্তরাষ্ট্রে যাচ্ছিলেন। কিন্তু শুক্রবার বোস্টনের লোগান আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে নামার পর তাকে জেরা করা হয়। খবর বিবিসির

জেরার এক পর্যায়ে ইমিগ্রেশন কর্মকর্তা ইসমাইলের মোবাইল ফোন ও ল্যাপটপ জব্দ করেন। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে এক বন্ধুর পোস্টের বিষয়ে তাকে জিজ্ঞাসা করা হয়। ওই পোস্টের সঙ্গে ইসমাইলের কোনো সম্পৃক্ততা না থাকলেও তার ভিসা বাতিল করা হয়।

কাস্টমস ও বর্ডার প্রটেকশন মুখমাত্র মাইকেল ম্যাকার্থি বলেন, তদন্তে পাওয়া তথ্যের ভিত্তিতে এই সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে।

হার্ভার্ড বিশ্ববিদ্যালয় এক বিবৃতিতে বলেছে, ৩ সেপ্টেম্বর ক্লাস শুরু হওয়ার আগে তারা বিষয়টি সমাধানের চেষ্টা করছে। কর্তৃপক্ষের সঙ্গে যোগাযোগ করা হচ্ছে।

গত জুনে মার্কিন পররাষ্ট্র দফতর তাদের ভিসা প্রদান আইনে নতুন নিয়ম যোগ করে। নতুন নিয়মে বলা হয়, মার্কিন ভিসার জন্য সব আবেদনকারীকে তাদের সামাজিক যোগাযোগের তথ্য জমা দিতে হবে। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমের নাম, ই-মেইল ঠিকানা এবং ফোন নম্বর জমা দিতে হবে।