ছাত্রদলের দুই শীর্ষ পদে লড়বেন ৪৫ জন

নিউজ ডেস্ক:    জাতীয়তাবাদী ছাত্রদলের দুই শীর্ষ পদে লড়বেন ৪৫ জন ছাত্রনেতা। এর মধ্যে সভাপতি পদে ১৫ জন এবং সাধারণ সম্পাদক পদে ৩০ জন রয়েছেন।

ছাত্রদলের কাউন্সিলের জন্য গঠিত যাচাই-বাছাই কমিটির আহ্বায়ক ও বিএনপির সাংগঠনিক সম্পাদক ফজলুল হক মিলন স্বাক্ষরিত সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়েছে। এই নেতারা আগামী ১৪ সেপ্টেম্বর অনুষ্ঠেয় ষষ্ঠ কাউন্সিলে ছাত্রদলের সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদক পদে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করবেন। ছাত্রদলের ১১৭টি ইউনিটের ৫৮০ জন কাউন্সিলর ওই দিন তাদের নতুন নেতা নির্বাচন করবেন। ওইদিন সকাল ১০টা থেকে দুপুর ২টা পর্যন্ত নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে।

সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদক পদের জন্য ১০৮ জন মনোনয়ন ফরম সংগ্রহ করলেও ৭৬ জন জমা দিয়েছিলেন। তাদের মধ্যে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্রদলের সভাপতি মেহেদী আল তালুকদার ও বিলুপ্ত কমিটির সহ-সাংগঠনিক সম্পাদক আসাদুল আলম টিটুসহ ২৯ জনের মনোনয়নপত্র বাতিল হয়েছে। এর মধ্যে মেহেদী আল তালুকদার ও আসাদুল আলম টিটু আপিল করবেন বলে সমকালকে জানিয়েছেন।

ছাত্রদলের সাবেক সভাপতি ফজলুল হক মিলন বলেছেন, বিয়েসহ নানা কারণে প্রার্থিতা বাতিল করা হয়েছে। তবে মনোনয়নপত্র বাতিল হওয়া ছাত্রনেতারা বুধবারের মধ্যে আপিল করার সুযোগ পাবেন। আগামী বৃহস্পতিবার ও শুক্রবার ছাত্রদলের সাবেক সভাপতি শামসুজ্জামান দুদুর নেতৃত্বাধীন আপিল কমিটি শুনানি গ্রহণ করবে। ৩১ আগস্ট প্রার্থিতা প্রত্যাহারের শেষ দিন। ২ সেপ্টেম্বর চূড়ান্ত প্রার্থী তালিকা প্রকাশ করা হবে। ১২ সেপ্টেম্বর মধ্যরাত পর্যন্ত প্রচার কার্যক্রম চালানোর সুযোগ থাকবে। ছাত্রদলের সাবেক নেতা ও ডাকসুর সাবেক জিএস খায়রুল কবির খোকনের নেতৃত্বে সাত সদস্যের কমিটি নির্বাচন পরিচালনা করবে।

সভাপতি প্রার্থীদের মধ্যে রয়েছেন- কাজী রওনকুল ইসলাম শ্রাবণ, মামুন খান, আশরাফুল আলম ফকির, ফজলুর রহমান খোকন, আবদুল মাজেদ, মাহমুদুল হাসান বাপ্পি, হাফিজুর রহমান, রিয়াদ মো. তানভীর রেজা রুবেল, এরশাদ খান, সুরুজ মণ্ডল, শামীম হোসেন, সুলাইমান হোসেন, মো. ইলিয়াস, এসএম সাজিদ হাসান বাবু এবং এবিএম মাহমুদ আলম সরদার।

সাধারণ সম্পাদক প্রার্থীরা হচ্ছেন- জুয়েল হাওলাদার (সাইফ মাহমুদ জুয়েল), আমিনুর রহমান আমিন, মো. হাসান (তানজিল হাসান), জাকিরুল ইসলাম জাকির, মোহাম্মদ কারিমুল হাই (নাঈম), মাজেদুল ইসলাম, আলাউদ্দিন খান, ডালিয়া রহমান, মিজানুর রহমান সজীব, নাজমুল হক হাবীব, ওমর ফারুক শাকিল চৌধুরী, শেখ আবু তাহের, শাহ নেওয়াজ, মহিনউদ্দিন রাজু, মুন্সি আনিসুর রহমান, ইকবাল হোসেন শ্যামল, মিজানুর রহমান শরীফ, রাশেদ ইকবাল খান, আরিফুল হক, রিয়াদ মোহাম্মদ ইকবাল হোসাইন, আজিজুল হক সোহেল, শেখ মো. মশিউর রহমান রনি, আব্দুল মোমেন মিয়া, রাকিবুল ইসলাম রাকিব, মোস্তাফিজুর রহমান, মোহাম্মদ আবুল বাশার, আসাদুজ্জামান রিংকু, সোহেল রানা, কাজী মাজহারুল ইসলাম এবং এএএম ইয়াহইয়া।